অন্যান্যপশ্চিমবঙ্গসেরা খবর

বেকারদের খুশি করতে নতুন স্কিম রাজ্য সরকারের, এইভাবে প্রতিমাসে আপনিও পেতে পারেন ১৫০০ টাকা!

রাজনৈতিক চাপানউতোর দিনদিন বেড়েই চলেছে এই রাজ্যে। চাকরির অবস্থা এতোটাই খারাপ যে বড়ো বড়ো ডিগ্রি নিয়ে মানুষ রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছে। এমতাবস্থায় সামাজিক আর অর্থনৈতিক উন্নতির লক্ষ্যে রাজ্য সরকার এমন কিছু প্ল্যান নিয়ে এসেছে যেখান থেকে আপনি লাভবান হবেন। হয়তো অনেকেই এই বিষয়ে এখনও অবগত নন, আমরা সেই বিষয়েই বিস্তারিত জানাবো আজকের প্রতিবেদনে।

রাজ্যে এখন চাকরির হাল বেহাল। তাই বেকার যুবক যুবতীদের কষ্ট কিছুটা লাঘব করার জন্য সরকার নিয়ে এসেছে কিছু জনমোহিনী প্রকল্প। অনেকেই জানেন যে, বেকার যুবক যুবতীদের জন্য রাজ্য সরকার নিয়ে এসেছে যুবশ্রী ভাতা। এই প্রকল্প সম্পর্কে শুনে থাকলেও অনেকেই হয়তো জানেন না যে কীভাবে আবেদন করতে হয়। জেনে নিন সম্পূর্ণ পদ্ধতি।

প্রকল্পের নাম : যুবশ্রী প্রকল্পের নাম হয়তো সবাই জানেন। সম্প্রতি আবারও নতুন করে আবেদন শুরু হয়েছে এতে।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য : নানান সমস্যার কারণে যারা এখনো চাকরি পাননি তাদের কিছুটা আর্থিক সহায়তা করার জন্যই এই প্রকল্প আনা হয়েছে।

টাকার মূল্য : আবেদনকারীর সমস্ত নথী দেখে যদি মনে হয় তিনি এই ভাতার জন্য উপযুক্ত তাহলে তিনি তার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৫০০ টাকা পেয়ে যাবেন।

আবেদন পদ্ধতি : এক্ষেত্রে প্রথমেই যেতে হবে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে। অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি হলো, https://employmentbankwb.gov.in। সেখানে গিয়ে নাম এবং ইমেল আইডি দিয়ে ডাউনলোড করে নিতে হবে আবেদন পত্রটি। সেখানে আপনাদের সামনে আসবে একটি ফর্ম। এবার সেই ফর্মে প্রার্থীকে তার নিজের সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য যেমন, প্রার্থীর নাম , পিতা-মাতার নাম, বয়স, শিক্ষাগত যোগ্যতা, কোনও বিষয়ে অভিজ্ঞতা থাকলে তার তথ্যাদি, জাতিগত সংসাপত্র, শারীরিক মাপজোক, প্রার্থীর বাসস্থানের ঠিকানা, ফোন নম্বর , ইমেল আইডি সহ প্রার্থীকে তার সাম্প্রতিক সময়ের ফটো আপলোড করতে হবে।

এরপর সমস্ত তথ্য ভালো ভাবে যাচাই করে দেখে আবেদনকারীর আবেদন পত্রটি ফাইনাল সাবমিট করে প্রিন্ট আউট করে রেখে দিতে হবে। এরপর আবেদন করার ৬০ দিনের মধ্যে প্রিন্ট আউটটি নিকটবর্তী এক্সচেঞ্জ অফিসে গিয়ে জমা দিয়ে আসতে হবে ।সেক্ষেত্রে অবশ্যই নিজের যাবতীয় তথ্যাদি জুড়ে দিতে হবে। মনে রাখবেন ৬০ দিনের মাথায় না করলে আপনার আবেদনপত্র বাতিল হয়ে যাবে।

ব্যাংক আধিকারিক আবেদনকারীর সমস্ত তথ্য ভেরিফাই করে নেবেন। প্রক্রিয়ার শেষে আবেদনকারীর মোবাইলে আসবে একটি OTP। সেই ওটিপি নাম্বার দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করলেই এমপ্লয়মেন্ট ব্যাংকের ইমেল আইডি এবং পাসওয়ার্ড চলে আসবে আবেদনকারীর ফোনে। এরপর যখন যুবশ্রী প্রকল্পের তালিকা প্রকাশ করা হবে সেখানে যদি আপনার নাম থাকে তাহলে প্রতিমাসে আপনি ১৫০০ টাকা পেতে থাকবেন রাজ্য সরকারের তরফ থেকে।

Related Articles

Back to top button