অন্যান্যসেরা খবর

ক্লাস ৩ থেকে সরাসরি দেবে অষ্টম শ্রেণীর পরীক্ষা, রইল দেশের ট্যালেন্টেড গুগল গার্লের পরিচয়

জীবনে প্রতিষ্ঠিত হতে গেলে শিক্ষা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। একজন মানুষ শিক্ষার মাধ্যমে যেকোনো কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে পারে। আজকে মাত্র আট বছর বয়সী এক শিশু কন্যার সাফল্যের গল্প আপনাদেরকে জানাবো। হিমাচল প্রদেশের (Himachal Pradesh) কাংলা জেলার পালম্পুর শহরের এই শিশু কন্যার নাম কাশভি (Kashvi)। তিনি তার প্রতিভা ও মেধার জন্য আজ ‘গুগল গার্ল’ (Google Girl) নামে পরিচিত।

জানা গিয়েছে, মাত্র আট বছর বয়সেই এই মেয়ে সরাসরি তৃতীয় শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণীর পরীক্ষা দেবে। হিমাচল প্রদেশের এই কন্যাকে এই অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তার বাবা সন্তোষ কুমারের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ রফিক ও জ্যোৎস্না রিওয়াল ডিভিশন মঞ্চে এই আদেশ দিয়েছেন। কাশভি এখন রেনবো পাবলিক সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলে তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ছে।

তার যখন বয়স মাত্র তিন বছর, সেই বয়সেই সে ভারতের রাজ্য, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, প্রতিবেশী দেশের রাজধানী, গুরুত্বপূর্ণ দিন সহ বিভিন্ন বিষয়ে অসাধারন জ্ঞান ছিল তার। এই অসাধারণ প্রতিভার তার অনেক ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছে। তার বাবা ২০২১ সালের ১৬ অক্টোবর জোনাল হাসপাতাল ধর্মশালায় তার আই কিউ পরীক্ষা করেছিলেন। সেখানে তার নম্বর ছিল ১৫৪।

চিকিৎসক তাকে পরীক্ষা করে জানিয়েছেন যে তার মধ্যে ব্যতিক্রমী বুদ্ধিমত্তার জোরে কাশভি অন্যরকম প্রতিভাবান শিশু। আর এই আই কিউ পরীক্ষার নম্বররের সাথে চিঠি লিখে তার বাবা রাজ্যের শিক্ষা বিভাগের বিভিন্ন কর্মকর্তাদের কাছে পাঠিয়েছিলেন। আর তাকে অষ্টম শ্রেণীতে ভর্তি করার অনুরোধ করেছিলেন। যদিও এরপর তাকে অষ্টম শ্রেণীর পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার অনুমতি দেওয়া হয়।

Related Articles

Back to top button