অন্যান্যসেরা খবর

শত চেষ্টা করেও জোটেনি চাকরি, শেষে শুরু করেছিলেন মাশরুম চাষ, এখন বার্ষিক উপার্জন ২৫ লাখ টাকা

যেকোনো কাজেই জীবনে সাফল্য অর্জন করতে হলে কঠোর পরিশ্রম ও মনের ইচ্ছা এবং আত্মবিশ্বাসের প্রয়োজন হয়। এর ফলে একজন ব্যক্তি জীবনে সফল হতে পারেন। এমনই একজন ব্যক্তি হলেন বিহারের নওয়াদার বাসিন্দা মনোজ কুমার(Manoj Kumar)। যিনি বারবার চাকরির খোঁজ করেও ব্যর্থ হওয়ার পর অবশেষে মাশরুম চাষ করে সফলতা অর্জন করেছেন।

আজকের এই প্রতিবেদনের তার এই মাশরুম চাষ করে প্রচুর টাকা উপার্জন করার কাহিনী আপনাদেরকে জানাবো। ২০০৭ সালে তিনি মাত্র ৭০০ টাকা দিয়ে মাশরুম চাষ করে সেসময় ২৪ হাজার টাকা আয় করেছিলেন। শুধু তাই নয়, এই উপার্জন করার জন্য তাকে অনেক বাধা বিপত্তির সম্মুখীন হতে হয়েছে।

তিনি তার কৃষিকাজের এই ব্যবসাকে আরও উন্নত করে তোলার জন্য ২০০৯ থেকে ২০১০ সালে ডি এম আর সোলান থেকে মাশরুম চাষের প্রশিক্ষণ নেন। তিনি শুধু মাশরুম চাষ নয়, এর সাথে মাশরুম চাষের সার তৈরি করেছেন। এরপর তিনি স্পন শিল্প গড়ে তোলেন।

একটি প্রতিবেদনে তিনি বলেছেন যে তিনি বাটন মাশরুম তৈরি করার জন্য দুটো বড় বড় এসি প্লান্ট তৈরি করেছেন। এর ফলে তিনি অনেক বেশি বাটন মাশরুম উৎপাদন করতে সক্ষম হচ্ছেন। বিহারে তিনি একজন সফল উদ্যোক্তা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন। এর সাথে তিনি আরো ৫০০০ মানুষকে এর সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দিয়েছেন। দিল্লির প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কপিল সিবাল তার এই কাজের জন্য তাকে সম্মানিত করেছিলেন। বর্তমানে এই ব্যক্তির বার্ষিক আয় প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা।

Related Articles

Back to top button