বিনোদনসেরা খবর

ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে ফেসবুকে ঠাট্টার পোস্ট, ঋত্বিক চক্রবর্তীকে পাল্টা পোস্ট করলেন সব্যসাচী

দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে এল কাঙ্খিত সুখবর। অবশেষে সাড়া দিয়েছে ঐন্দ্রিলা (Aindrila Sharma)। দুদিন টানা উদ্বেগের মধ‍্যে থাকার পর শেষমেষ আশার খবর শোনালেন সব‍্যসাচী চৌধুরী (Sabyasachi Chowdhury)। এক দীর্ঘ পোস্ট করে ঐন্দ্রিলার স্বাস্থ্য সম্পর্কে আপডেট দিলেন। আর তারই মাঝে নাম না করেই তীব্র কটাক্ষ করলেন অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তীকে।

আসলে গোটা ফেসবুক যখন ঐন্দ্রিলার সুস্থতা কামনা করতে ব্যস্ত, ঠিক তখনই ঠাট্টার ছলে একটা পোস্ট করেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। ফেসবুকে প্রার্থনার যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি লেখেন, “অনেকেই দেখি নানা কারণে ফেসবুকে প্রার্থনা করেন। কিন্তু, যার কাছে প্রার্থনা করা হয়, তিনি ফেসবুক করেন তো?” যদিও এই পোস্টে ঋত্বিক কারো নাম নেননি, তবে নেটিজেনরা ধরেই নিয়েছিল যে, ঋত্বিকের এই বার্তাটি ঐন্দ্রিলার শুভানুধ্যায়ীদের উদ্দেশ্যেই করা।

আর তারপর থেকেই কার্যত কটাক্ষের ঢল নামে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ঐন্দ্রিলার ভক্তরা এই নিয়ে অভিনেতার তুলোধুনো করলেও এতদিন মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন সব্যসাচী। তবে এবার বোধহয় সেই নিরবতা ভেঙেছে। অভিনেতা তার সাম্প্রতিক পোস্টে ঐন্দ্রিলার শারীরিক অবস্থার আপডেট তো দিয়েইছেন, তারসাথে বেনামে একটা বার্তাও দিয়েছেন ঋত্বিককেও।

ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে দীর্ঘ বার্তার এক অংশে লেখা ছিল, “ঈশ্বর ফেসবুক করেন না আমি জানি, তাই লিখেছিলাম মন থেকে প্রার্থনা করুন, ‘ফোন’ থেকে করুন লিখিনি। চিকিৎসাশাস্ত্রে যে বিজ্ঞানই শেষ কথা, আমি সে কথাও জানি। তবে পর পর তিনজন নিউরো-সার্জন যদি বলেন ‘ঈশ্বরকে ডাকুন’, তাহলে আর না ডেকে উপায় কি? ওনাদের তুলনায় আমি নিতান্তই অশিক্ষিত।”

তবে এখানেই শেষ নয়, তিনি সেই প্রত্যেকটি মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন যারা ঐন্দ্রিলার জন্য প্রার্থনা করেছে। সব্যসাচীর কথায়, “কেবল আমি একা নই, মুর্শিদাবাদের প্রতিটা মন্দির, প্রতিটা মসজিদে মানুষ ওর জন্য প্রার্থনা করেছে। বিভিন্ন ধর্মের বিভিন্ন প্রসাদ এবং অজস্র আশীর্বাদী হাসপাতালে এসেছে নিয়মিত। তোমাদের সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে আমি ছোট করতে পারবো না।

Related Articles

Back to top button