বিনোদনসেরা খবর

‘এত আনন্দ আয়োজন, সবই বৃথা তোমায় ছাড়া’, এটাই ছিল ঐন্দ্রিলার শেষ স্টেজ শো, রইল ভিডিও

লক্ষ ভক্তকে কাঁদিয়ে অবশেষে দিকপাড়ের উদ্দেশ্যে পাড়ি জমালেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। সদ্য প্রস্ফুটিত ফুলের মতোই মিষ্টি ছিল তার হাসি, রূপ ছিল রজনীগন্ধার মতোই স্নিগ্ধ। ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধ করতে করতে ক্লান্ত হয়ে পড়েন ‘ফাইটার’ ঐন্দ্রিলা। একের পর এক রোগের মারণ কামড়ের পর হেরে গেলেন জীবনের শেষ যুদ্ধে।

রবিবার বেলা গড়িয়ে দুপুর বেলায় সোশ্যাল মিডিয়া স্ক্রল করতে করতেই আসে ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর খবর। একটা মুহুর্তের জন্য থমকে গিয়েছিল সবার আঙুল। সত্যিই আর নেই মেয়েটা? এ খবর যেন মিথ্যা হয়! এমন অনেক প্রার্থনাই করেছিল অনুরাগীরা। কিন্তু ওই যে নিয়তির কাছে মানুষ যে বড়ই অসহায়।

হাসপাতালের ডাক্তার তো ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছিলেন, ‘ও অনেক আগেই চলে গিয়েছে। লেট হার গো পিসফুলি’। কিন্তু তবু সবাই চাইছিল একটা মিরাকেল হোক। আবার ফিরে আসুক ঐন্দ্রিলা। এর আগেও অনেক মিরাকেলই তো ঘটেছে তাঁর সাথে। কিন্তু এবার আর সেটা হয়নি।

অভিনেত্রীর মৃত্যুর পরেই গোটা সোশ্যাল মিডিয়ায় জুড়েই ছেয়ে রয়েছেন তিনি। চারিদিকে ভাইরাল হচ্ছে তাঁর পুরোনো পোস্ট। সেসবের মধ্যেই মানুষ খুঁজে নিচ্ছে তাঁকে। এরমধ্যে বারবার যেটা ভেসে আসছে তা হল দাদাগিরির মঞ্চে সৌরভ গাঙ্গুলির সামনে ঐন্দ্রিলার নাচের পারফরমেন্সের একটি ভিডিও।

সাল ২০২১-এ দ্বিতীয়বার যখন ক্যান্সারকে হারিয়ে মঞ্চে এক অদ্ভুত আলোর দ্যুতি ছড়িয়ে দিয়েছিলেন সেদিন অভিনেত্রী। ‘দেখো আলোয় আলো আকাশ, দেখো আকাশ তারায় ভরা’ গানে অদ্ভুত মাদকতা ছড়িয়েছিলেন তিনি। সৌরভ তাঁকে জড়িয়ে বলেছিলেন, ‘এত আনন্দ আয়োজন, সবই বৃথা তোমায় ছাড়া’।

 

কিন্তু ঐন্দ্রিলার বোধহয় তাড়া ছিল। আর তাই তো সব ব্যর্থ করে দিয়ে পালিয়ে গেলেন তিনি। আজ তিনি চলে যাওয়ার পর সেই ভিডিও মন্ত্রমুগ্ধের মত দেখছে গোটা বাংলার মানুষ। ডিডিওটি দেখলেই চোখ ভরে উঠছে জলে। সেদিন মঞ্চে নাচ দেখে ‘এখানে যারা আছেন, সবার আয়ু যেন তোমার লাগে’ বলে আশীর্বাদ করেছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। আর এটাই ছিল ঐন্দ্রিলার শেষ স্টেজ শো।

Related Articles

Back to top button