বিনোদনসেরা খবর

৬ মাস আগে শেষ দেখা, ‘শুধু মেয়ের জন্যই বাঁচা’, অভিষেকের স্মৃতিচারণায় চুমকি চৌধুরী

গত সপ্তাহে প্রয়াত হয়েছেন বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা অভিষেক চ্যাটার্জী। অভিনেতার অকাল প্রয়াণে শোকস্তব্ধ গোটা টলিউড। তার সহকর্মী থেকে শুরু করে অভিনেতা-অভিনেত্রীরা সকলেই শোক প্রকাশ করেছেন। তার মৃত্যু যে অভিনয় জগতের ক্ষেত্রে অপূরণীয় ক্ষতি সেটাও মেনে নিয়েছেন তারকারা। একসময় বাংলা সিনেমায় দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি। এরপর বহু বছর বড় পর্দায় না দেখা গেলেও ছোটপর্দায় কামব্যাক করেছিলেন।

আর এবার সহকর্মীর স্মৃতিচারণে মুখ খুললেন টলিউড অভিনেত্রী চুমকি চৌধুরী। এই অভিনেত্রী একসময় প্রচুর সুপারহিট সিনেমা দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। কিন্তু আজ আর তাকে বড় পর্দায় দেখতে পাওয়া যায় না। ছোটপর্দায় মাঝেমধ্যে অভিনয় করেন তিনি। অভিষেকের সঙ্গে শুধু সহকর্মী হিসেবে নয়, পারিবারিক যোগসূত্র ছিল অভিনেত্রীর। চুমকি চৌধুরীর বাবা অঞ্জন চৌধুরীর খুব প্রিয় অভিনেতা ছিলেন অভিষেক।

চুমকি ও রিনার সঙ্গে অভিষেকের ছিল একেবারেই দাদা বোনের মত সম্পর্ক। অভিনেত্রী জানান, ‘৬ মাস আগে শেষ বার দেখা হয়েছিল। চন্দন নাগের একটা রক্তদান শিবিরে একসঙ্গে হাজির হয়েছিলেন দুজনে। শিবির শেষ এর পর আমাদের পিতলের হাঁড়ি উপহার দেওয়া হয়েছিল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। এই উপহার পেয়ে দারুন খুশি হয়েছিল অভিষেক দা।’

এরপরে অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘অভিষেক দা আমায় এসে বলল এই হাঁড়িগুলোর জন্যই এখানে আসি। আমি বলি এত মিষ্টি খাওয়া কিন্তু ঠিক নয়, মোটা হয়ে যাচ্ছ। সঙ্গে সঙ্গেই জবাব আসে, আর কি হবে! সেই তো বাবা কাকার চরিত্রই পাবো। এখন শুধু আমার মেয়েটার জন্যই বাঁচা।’ উল্লেখ্য, তিনি যে দুটো ধারাবাহিকে অভিনয় করছিলেন সে দুটো ধারাবাহিকে বাবার চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছিল অভিনেতাকে। যদিও বারবার অভিনয়ের ক্ষেত্রে তার আফসোসের কথা শোনা গিয়েছে তার মুখে।

Related Articles

Back to top button