অন্যান্যসেরা খবর

জন্মাষ্টমীর রাতে এই নিয়ম পালন করুন, কৃষ্ণের কৃপায় সংসারে আসবে সুখ-সমৃদ্ধি

শক্তি-সাধনের এক গুহ্য রহস্যমার্গ হলো তন্ত্র বা তান্ত্রিক-সাধনা। বাঙালি মা কালীর সাধক হওয়ায় বাংলার জনগণের মধ্যে আদিকাল থেকেই তন্ত্রচর্চার প্রতি বিশেষ ভক্তি রয়েছে। বিভিন্ন গল্পের মাধ্যমে সেই সময়ের বাংলার তন্ত্রসাধনার ব্যাপারে আমরা জানতে পারি। তন্ত্রশাস্ত্রে ইচ্ছা পূরণ করতে চাইলে চারটি রাতকে শ্রেষ্ঠ রাত বলে অভিহিত করা হয়। এর মধ্যে প্রথম রাত্রি হলো কালরাত্রি, দ্বিতীয়টি অহোরাত্রি, তৃতীয়টি দারুণরাত্রি এবং চতুর্থটি মোহরাত্রি অর্থাৎ জন্মাষ্টমীর (Krishna Janmashtami ) রাত।

এটা বিশ্বাস করা হয় যে, জন্মাষ্টমীর দিন রাত্রি ১২ টার সময় বিশেষ কিছু উদ্যোগের ফলে জীবনে নানা সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। কিন্তু কী করতে হবে সেই জন্য!

কেন বিশেষ এই রাত্রি : আসলে এই জন্মাষ্টমীর দিনই রাত্রি ১২ টাতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্ম হয়েছিল। আর আল্লনক যদি পরিবারের দীর্ঘস্থায়ী সুখ এবং সমৃদ্ধির আকাঙ্খা করে থাকেন তাহলে ভগবানকে এই সময় জাফরান মিশ্রিত দুধ দিয়ে অভিষেক করুন।

পরিবারে শান্তির প্রতিকার হবে কিরূপে : আপনার পরিবারের মধ্যেও কি অন্তর্কলহ বেড়েই চলেছে? চিন্তা নেই, এবার জন্মাষ্টমীর সন্ধ্যায় বাড়ির তুলসীমঞ্চের তুলসী গাছের কাছে ঘি এর প্রদীপ জ্বালিয়ে রাখুন। প্রদীপ জ্বালা হলে এরপর সেখানে ‘ওম নমো ভগবতে বাসুদেবায়’ জপ করতে হবে। মাথায় রাখবেন এই জপ করতে করতে ১১ বার আপনার প্রদক্ষিণ করতে হবে। ব্যাস তাহলেই আপনার পরিবারে ভালোবাসার পরিবেশ পুনঃপ্রতিষ্ঠা হবে।

অর্থ লাভের করতে হলে এই ব্যবস্থাগুলি গ্রহণ করুন : জন্মাষ্টমীর দিন সকাল বেলা স্নান সেরে নিকটবর্তী রাধা-কৃষ্ণ মন্দিরে গিয়ে ভগবান শ্রী কৃষ্ণকে হলুদ ফুলের মালা অর্পণ করুন। এই কার্য করলেই আপনার আর্থিক লাভের সম্ভাবনা তৈরি হয় এবং আর্থিক সমস্যা আপনরা জীবন থেকে দূরে যেতে শুরু করে।

আজ ১৮ই আগস্ট সারাদেশ জুড়ে জন্মাষ্টমী পালন করা হয়। এদিন ভাদ্রমাসের কৃষ্ণ পক্ষের অষ্টমী তিথিতে ও রোহিণী নক্ষত্রে জন্ম হয়েছিল শ্রীবিষ্ণুর অষ্টম অবতার শ্রী কৃষ্ণের। তাই আজকের দিনটিকে অতি পবিত্র বলে মনে করা হয়।

Related Articles

Back to top button