বিনোদনসেরা খবর

‘সুদীপার স্বামী কি টম ক্রুজ যে দূর্বলতা থাকবে?’ সঞ্চালিকাকে পালটা তোপ দাগলেন শ্রীলেখা

বিগত বেশকিছুদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়া বিতর্কের মধ্যমণি হয়ে রয়েছেন ‘রান্নাঘর’ খ্যাত সুদীপা চ্যাটার্জি। ঘটনার সূত্রপাত হয় অনলাইন ফুড ডেলিভারি অ্যাপ সুইগির ডেলিভারি বয়’দের নিয়ে একটি পোস্ট থেকে। যে পোস্টে সুদীপার দাবী ছিলো ডেলিভারি বয়’রা কেন ফোন না করে খাবার পৌঁছে দিতে পারেনা। তিনি মোটেও কোনো দারোয়ান নন যে বাড়ির দরজা খুলবেন।

এরপর থেকেই শুরু হয় সুদীপাকে নিয়ে সমালোচনা। যদিও এর আগেও বহুবার তার অহঙ্কারের ঝলক দেখেছেন নেট নাগরিকরা। তবে এবার যেন সবকিছু একটু বেশিই করে ফেলেছেন এই সঞ্চালিকা। তার এই সাম্প্রতিক পোস্ট দেখে নেটিজেনদের সাথে সাথে নিন্দায় সরব হন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রও। সুদীপার এমন মানসিকতা নিয়ে সমালোচনা করে লিখেছিলেন “উদ্ধত অসভ্য এই মহিলা!”

অভিনেত্রীর এই কটাক্ষ নজর এড়ায়নি সুদীপার। তবে এক্ষেত্রে নিজের ভুল শোধরানোর কোনো প্রয়াস তো করেননিই আবার উলটে তোপের পর তোপ দাগতে দেখা গেছে তাকে। সুদীপার কথায়, শ্রীলেখা নাকি তার পরিবারের ওপর নজর রাখেন। তার স্বামী তাকে কী উপহার দিচ্ছেন সেই খবরও পৌঁছে যায় শ্রীলেখার কাছে।

পাশাপাশি তিনি এও বলেন যে, শ্রীলেখার কথায় তিনি পাত্তা দেননি বলেই নাকি তাকে খারাপ বলা হয়েছে। অভিনেত্রীকে নোংরা কটাক্ষ করে তিনি জিজ্ঞেস করেন, “আমার স্বামী আমাকে কী দিল তাতে ওঁর কী? উনি কি আমাদের উপর নজর রাখেন? নাকি ওঁর আমার স্বামীর প্রতি দুর্বলতা আছে?”

বিতর্ক যদিও বা বন্ধ হয়ে যেত, সুদীপার এই কথা এবার আগুনে ঘি ঢালার কাজ করেছে। এমন বিস্ফোরক মন্তব্য শুনে ছাড়বার পাত্রী নন শ্রীলেখা। সম্প্রতি এক মিডিয়া সাক্ষাৎকারে এই প্রসঙ্গে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি বলেন “সম্প্রতি একটা ইউটিউব কনটেন্ট দেখছি যেখানে কিসব আজেবাজে কথা লিখেছেন সুদীপা। বলেছেন ওর স্বামীর প্রতি নাকি আমার দুর্বলতা আছে! হ্যাঁ মানতাম যে ট্রম ক্রুস এসেছেন, তাহলে তার প্রতি আমার একটা দুর্বলতা আসতে পারে।”

এখানেই শেষ নয়, সুদীপার মনোভাবকে কটাক্ষ শানিয়ে শ্রীলেখা বলেন, “আমার মনেহয় ওই মহিলার ভাবতে লাগে আমার স্বামীকে কেউ চাইছে। বা ভাবছে, বা স্বপ্ন দেখছে। তাঁর এটা ভুল ধারণা। কিন্তু তাঁর যদি এটা ভেবে আনন্দ হয়, ভালো লাগে তাহলে আমি আর কী বলবো! আনন্দে থাকুক। হঠাৎ করে মানুষ এতকিছু পেয়ে হয়তো মাথা ঘুরে গেছে, খারাপ হয়ে গেছে। তাই এমন ধারার মন্তব্য করছেন।” এখন দেখার বিষয় হলো, এটা এই বিতর্কের শেষ নাকি আরো বড়ো কোনো ঝড়ের সূচনা!

Related Articles

Back to top button