বিনোদনসেরা খবর

বিনোদন জগতেও জারি লড়াই! বলিউডের এই ৭ টি জনপ্রিয় শো পুরোপুরি বাতিল পাকিস্তানে

ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক নিয়ে তো সবাই অবগত। বন্দুকের লড়াই থেকে শুরু করে বাকযুদ্ধ সবেতেই দুশমনি লেগে আছে। জেনে অবাক হবেন যে, এই দুশমনি পৌঁছে গেছে টিভি শো’তেও। ভারতের বহু জনপ্রিয় ধারাবাহিক, শো আছে যেগুলি পাকিস্তানে সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ। এই টিভি শো গুলি ভারতে তো জনপ্রিয় বটেই, তার সাথে সাথে বাইরের লোকেরাও এই অনুষ্ঠানগুলি দারুন পছন্দ করে। কিন্তু পাকিস্তানে কোনোভাবেই এই শো গুলি চলবেনা।

১) বিগ বস : ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বিতর্কিত শো বিগবস সম্পূর্ণ রূপে নিষিদ্ধ আমাদের পড়শি দেশে। পাকিস্তানের থেকে বলা হয়েছে যে, বিগ বসে অনেক অশ্লীল ভাষার ব্যবহার করা হয় আর এই কারণেই নাকি পাকিস্তান সরকার এই শো নিষিদ্ধ করেছে।

২) নাগিন : বিগ বসের পরে রয়েছে নাগিন। এই শো-এর জনপ্রিয়তাও কোটিতে। এই মুহূর্তে আশেপাশের দেশগুলিতেও ছড়িয়ে পড়েছে নাগিনের জনপ্রিয়তা। কিন্তু এর সিজন ১ এর পর, পাকিস্তান সরকার দ্বিতীয় সিজন মুক্তির ঠিক ২ দিন আগে এটি নিষিদ্ধ করে।

৩) ভাবীজী ঘর পে হ্যায় : ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় কমেডি শো ভাবীজী ঘর পে হ্যায়। শো’এর কিছু মূখ্য চরিত্র হলো অঙ্গুরি ভাবী এবং অনিতা ভাবী। অত্যন্ত মজাদার কন্টেন্টের এই শোয়ের জনপ্রিয়তা ব্যাপ। কিন্তু পাকিস্তান সরকারের মতে এতে নাকি ভুল বার্তা দেওয়া হচ্ছে। আর তাই পাকিস্তানে এই শো নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

৪) ইয়ে হ্যায় মোহাব্বতে : বেশ লম্বা সময় ধরে চলেছিলো স্টার প্লাসের এই ধারাবাহিকটি। কিন্তু কোনো অজানা কারণে পাকিস্তান সরকার এই শো’এর উপর ব্যান লাগিয়েছে।

৫) কবুল হ্যায় : এটিও একটি হিট শো। শো’এর গল্প ছিল এক ভারতীয় মুসলিম পরিবারের ওপর। কিন্তু এই শোও পাকিস্তানে নিষিদ্ধ ছিল। যার কারণ এখনও জানা যায়নি।

৬) মে আই কাম ইন ম্যাডাম : “মে আই কাম ইন ম্যাডাম ” ভারতে খুব জনপ্রিয় শো ছিল। কিন্তু ‘ভাবি জি ঘর পার হ্যায়’ শোয়ের মতো এই শোও নিষিদ্ধ করা হয়। যার কারণ ছিল শুধু অনুষ্ঠানের বিষয়বস্তু।

৭) থপকি প্যায়ার কি : এই গল্পটা একটা মেয়েকে নিয়ে। যে তার স্বপ্ন পূরণ করতে শহরের বাইরে যায়। পাকিস্তানে এই শোও নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যার পেছনের কারণ হল এর বিষয়বস্তু।

Related Articles

Back to top button