বিনোদনসেরা খবর

পরিচালক-প্রযোজকের কুপ্রস্তাবের জেরে ছাড়তে হয়েছিল অভিনয়, কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খুললেন চিনি ওরফে প্রিয়াঙ্কা

বাংলা টেলিভিশন জগতের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল স্টার জলসার খড়কুটো। বহুদিন টিআরপি তালিকা ভালো ফল করেছিল এই ধারাবাহিক। কিন্তু হঠাৎ করেই টিআরপি কমে যাওয়ায় সন্ধ্যেবেলার পরিবর্তে দুপুরবেলা এই ধারাবাহিকের টাইম স্লট ঠিক করেন নির্মাতারা। এখানে সিরিয়ালের নায়ক সৌজন্যের বোনের চরিত্রে অভিনয় করছেন চিনি ওরফে অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা মিত্র। এছাড়া স্টার জলসার ধারাবাহিক মোহর- এ শঙ্খর বিয়ার চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি।

যদিও অভিনেত্রী হওয়ার ইচ্ছে তার ছিল না। নাচকেই তিনি জীবনের ধ্যান-জ্ঞান বানিয়েছিলেন। এই নাচ নিয়ে পড়াশোনা করছিলেন প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু তার দাদার তোলা একটি ছবি থেকে অভিনয়ের সুযোগ আসে তার কাছে। তিনি তার প্রথম সিরিয়াল ছদ্মবেশীতে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

হঠাৎ করেই তিনি সিরিয়াল মাঝপথে ছেড়েছিলেন। এই সিরিয়াল ছাড়া পেছনে রয়েছে এক বিরাট কারণ। আর এর কারণ হিসেবে তিনি অভিযোগ করেছেন তার প্রথম সিরিয়ালের পরিচালক ও প্রযোজকদের বিরুদ্ধে। তিনি নিজের চোখেই কাস্টিং কাউচ দেখেছেন।এই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, কি আর বলি! জীবনের প্রথম ধারাবাহিকে কাজ করতে এসে যা অভিজ্ঞতা হয়েছে! সহ অভিনেতাদের কারো সঙ্গে আমার কোনো সমস্যা হয়নি। বরং আমায় উত্ত্যক্ত করে ছেড়ে দিয়েছিলেন পরিচালক-প্রযোজকরা। আমার ফোনে সব সময় খারাপ মেসেজ আসতো।

‘এর সাথে অভিনেত্রী আরো বলেন যে সেইসব কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ার জন্য সেটে সাংঘাতিক হেনস্তা করা হয়েছিল আমাকে। ভয়ে জড়োসড়ো হয়ে থাকতাম। বাড়ি ফিরে এসে কাঁদতাম আমি। এইসব কারণগুলোর জন্যই ওই ধারাবাহিক থেকে সরে যেতে হয়েছিল আমাকে। টানা দু’বছর ইন্ডাস্ট্রিতে ফেরার সাহস পাইনি আমি। ‘ তবে এখন নিজে অনেকটা বদলে দিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। আর কোন কিছুতে ভয় পান না বলেও উল্লেখ করেন সকলের প্রিয় চিনি।

Related Articles

Back to top button