বিনোদনসেরা খবর

সপরিবারে ঘুরতে যাবেন বলে ছুটি নিয়েছিলেন, বেড়াতে যাওয়া আর হল না অভিষেকের, শোকপ্রকাশ লীনা গাঙ্গুলীর

বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়(Abhisekh Chatterjee) প্রয়াণে শোকস্তব্ধ টলিউড। ইতিমধ্যেই টলিউডের বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীরা তাকে শেষবারের মতো দেখতে তার বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন। অভিষেকের সহকর্মী থেকে শুরু করে অন্যান্য তারকা সকলেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা পোস্ট করেছেন। আবার লেখিকা লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিগত ১০ বছর কাজ করেছেন অভিষেক। তাই তার মৃত্যুতে মুখ খুলেছেন লীনা গঙ্গোপাধ্যায়।

ম্যাজিক মোমেন্টেসের প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে বিগত ১০ বছর ধরে কাজ করেছেন অভিষেক। তিনি বড্ড ছুটি চাইতেন তাই বলে লীনার সঙ্গে মাঝেমধ্যেই মনোমালিন্য হত। আবার এই নিয়ে লীনা অভিষেককে বলতেন, ‘এত দিন ছুটি নিলে কাজটা করব কি করে?’ এই প্রশ্নের উত্তরে অভিষেক চ্যাটার্জি আবার বলতেন, ‘ম্যাডাম ছুটি আমাকে দিতেই হবে। তাই বলে আবার আমার কাছ থেকে বাদ দিয়ে দেবেন না। এরকম নয় যে আপনার সঙ্গে কাজ না করলে আমি ইন্ডাস্ট্রিতে আর কাজ পাবো না। আমি আপনাদের প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে কাজ করতে চাই।’

প্রয়াত অভিনেতার সম্পর্কে এমনই কিছু কথা জানিয়েছেন লেখিকা। তার কথায়, স্ত্রী ও মেয়ে নিয়ে ভরা সংসার ছিল অভিষেকের। তার ভেতরে অভিনেতা অভিষেক, নায়ক অভিষেক সবসময় ছটফট করত। আরো কাজ করতে চাইতেন তিনি। লেখিকা জানিয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে পায়ের সমস্যায় ভুগছিলেন অভিনেতা। সঠিকভাবে পা নাড়াতেও পারতেন না। কিন্তু তবুও কাজ করে যেতে ভালোবাসতেন। এই শরীর অসুস্থতার প্রসঙ্গে পরিচালক প্রযোজক শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়কে একবার অভিষেক বলেছিলেন, ‘আমি বসে বসে ঠিক ম্যানেজ করে নেব।’

লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের কথায় এই বয়সে এমন প্রতিভাবান অভিনেতা পাওয়া সত্যিই বিরল। তিনি খুব ধার্মিক মানুষ ছিলেন। ঈশ্বরের কাছে নত থাকতেন। লেখিকার পরের কাজের জন্য তার চরিত্র ঠিক করে রেখেছিলেন। কিন্তু সবটাই গোলমাল হয়ে গেল। লম্বা ছুটিতে বেড়াতে যাবেন বলে টিকিট কাটা হয়ে গিয়েছিল অভিনেতার। তবে সেই ছুটি নিয়ে আর ঘুরতে যাওয়া হলো না অভিষেক চ্যাটার্জীর।

Related Articles

Back to top button