অন্যান্যভারতসেরা খবর

মহান কৃষক! স্কুল তৈরী করতে নিজের ২৫ লাখের জমি দান করে দিলেন এই ব্যক্তি

বিদ্যালয় (School) দিয়েই মানুষ জীবনের প্রথম শিক্ষা (Education) লাভ করে। আর তাই বিদ্যালয়কে মন্দিরের সঙ্গে তুলনা করা হয়। প্রতিটি মানুষের কাছে শিক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। শিক্ষা একজন মানুষকে যেমন শিক্ষিত করে তোলে। ঠিক তেমনি জ্ঞান প্রদান করে। তবে বর্তমানে এমন অনেক জায়গা রয়েছে যেখানে স্কুলের অভাবে শিশুরা লেখাপড়া করতে পারছে না। আবার অনেক জায়গায় এখন সরকারের পক্ষ থেকে বিদ্যালয় নির্মাণের কাজ শুরু করা হচ্ছে।

সম্প্রতি জানা গেছে মধ্যপ্রদেশের (Madhyapradesh) অশোকনগরে বসবাসকারী এক কৃষক (Farmer) বিজেন্দ্র সিং রঘুবংশী (Bijendra Singh Raghubangshi) তার মূল্যবান জমি সরকারকে দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যাতে তার এলাকার শিশুরা সেখানে পড়াশোনা করতে পারে। সেখানে স্কুল গড়ে উঠুক সেটাই চান এই ব্যক্তি। জানা গিয়েছে, সরকারের পক্ষ থেকে সি এম রাইজ স্কুলের অনুমোদন দেয়া হলেও সরকারের পক্ষ থেকে ১০ বিঘা জমির প্রয়োজন ছিল। কিন্তু মোট ছয় বিঘা জমি বেরিয়ে আসে।

তাই প্রশাসনের তরফ থেকে স্কুলটিকে অন্য জায়গায় স্থানান্তর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এরপর ওই কৃষক এই ঘটনা জানার পর তিনি সিদ্ধান্ত নেন যে কিছু না কিছু করে এই গ্রাম থেকে স্কুল যেতে দেবেন না। তাই অবিলম্বে তিনি তার চার বিঘা জমি দান করে দিয়েছেন। আর এই জমির দাম বলা হয়েছে ২৫ লক্ষ টাকা। এরপর তিনি প্রশাসনিক আধিকারিকদের সঙ্গে কথাবার্তা বলে তার জমির সরকারি স্কুলের জন্য বিনামূল্যে দান করেন।

এর মাধ্যমে একজন প্রকৃত মানুষের উদারতার পরিচয় পাওয়া গিয়েছে। তার পিতা ও তার আমলে দুই বিঘা জমিতে গ্রামের দরিদ্র মানুষের জন্য ঘর তৈরি করেছিলেন। ওই কৃষক এ প্রসঙ্গে বলেন, শিক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ আর কিছুই হয় না। আমিও গ্রাম থেকে শহরে লেখাপড়া করতে যেতাম, তাই জানি যে লেখাপড়ার গুরুত্ব কতটা। কিন্তু সরকারের এত বড় প্রকল্পের সুফল আমাদের নিজেদের গ্রামের ছেলে মেয়েরা পাবে এই জন্যই আমি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার বাবার পথ অনুসরণ করতে পারা আমার কাছে সৌভাগ্যের বিষয়।

Related Articles

Back to top button