বিনোদনসেরা খবর

বক্স অফিসে ফ্লপ হওয়ার পরে OTT প্ল্যাটফর্মে রিজেক্ট ‘লাল সিং চাড্ডা!’ চরম ভোগান্তিতে আমির খান

“প্লিজ আমার ছবি বয়কট করবেন না, দয়া করে আমার ছবিটি দেখুন” ঠিক এই ভাষাতেই দর্শকদের কাছে কাতর কন্ঠে মিনতি জানিয়েছিলেন বলিউডের তথাকথিত মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান। কিন্তু দূর্ভাগ্যের বিষয় তার কাকুতিতে দর্শকদের মন গলেনি। সারা ভারত জুড়ে বয়কটের ডাক দেওয়ায় ছবিটি মার খেয়েছে বক্স অফিসে।

১৮০ কোটির ছবির ১২ দিনে মেরেকেটে আয় মোটে ৫৬ কোটি টাকা। মুক্তির প্রথম দিনে ১১ কোটির ঘর ছুলেও শেষপর্যন্ত তা এসে দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষতে। একসময় আমির খান বেশ কিছু ভালো সিনেমা উপহার দিলেও একের পর এক ভারতবিরোধী এবং হিন্দু বিরোধী মন্তব্য করায় দেশের মানুষ খাপ্পা হয়ে উঠেছে অভিনেতার উপর।

অনেকে তো এটাও মনে করেন আমির খানের ছবির মাধ্যমেই চিন সরকার ভারত বিরোধী প্রপাগান্ডার জন্য অর্থসরবরাহ করে থাকে। এমতাবস্থায় মানুষের মন গলাতে মন্দিরে পুজো দেওয়া থেকে শুরু করে নিজের বাড়িতে জাতীয় পতাকাও উত্তোলন করা কোনো কিছুই বাকি রাখেননি তিনি। এমনকি দক্ষিণী তারকাদের জনপ্রিয়তা দেখে সেখানকার তারকাদের দিয়েও ছবির প্রচার করিয়েছিলেন আমির। কিন্তু চিঁড়ে ভেজেনি কোনো কিছুতেই।

তবে এখানেই শেষ নয়, এরপর আরো একটা ধাক্কা বাকি ছিলো মিস্টার পারফেকশনিস্টের জন্য। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ছবির কথা প্রকাশ্যে আসার পর জনপ্রিয় OTT প্লাটফর্ম নেটফ্লিক্স এই ছবির স্বত্ব কেনার জন্য আগ্রহ দেখায়। কিন্তু সেই সময় আমির নিজের ছবি নিয়ে এতোটাই কনফিডেন্ট ছিলেন যে, ছবির জন্য যা দাম হাঁকায় তাতে পিছিয়ে পড়ে নেটফ্লিক্স।

সূত্রের খবর, আমির খান ও Viacom লাল সিং এর OTT মুক্তির জন‍্য ২০০ কোটি টাকা চেয়েছিলেন। শুধু যে বড়ো দাম হাঁকিয়েছিলেন তাই নয়, সঙ্গে শর্ত দিয়েছিলেন, বড়পর্দা এবং OTT মুক্তির মাঝে অন্তত তিন মাসের অন্তর থাকতেই হবে। এখন শোনা যাচ্ছে ছবি ফ্লপ হওয়ায় এবং বয়কটের তুমুল ট্রেন্ড দেখে নেটফ্লিক্সও সম্পূর্ণরূপে হাত তুলে নিয়েছে। যা চুক্তি হয়েছিলো তার সম্পূর্ণরূপে বাতিল করেছে সংস্থাটি।

আমির ঘনিষ্ঠ এক ক্রু জানিয়েছেন, এই ছবিটিকে নাকি জীবনের সবচেয়ে বড়ো প্রোজেক্ট করতে চেয়েছিলেন আমির, কিন্তু হয়ে গেছে তার উল্টো। বড়ো পর্দায় তো এমনিই মুখ থুবড়ে পড়েছে ছবিটি এখন যদি কোনো OTT প্লাটফর্মও ছবির স্বত্বা কিনতে না চায় তাহলে হাতে হ্যারিকেন। তবে এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী শুধু নেটফ্লিক্সই নয়, কোনো সংস্থাই নাকি আর ছবির স্বত্বা কিনতে রাজি নয়।

Related Articles

Back to top button