অন্যান্যভারতসেরা খবর

চালু রেলের নতুন নিয়ম, এবার সময়ের আগেই স্টেশনে পৌঁছালে দিতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানা!

আমরা ভারতীয়রা সমস্ত জায়গাতেই আগে পৌঁছে যেতে পছন্দ করি। তাতে সে বিয়ে বাড়িই হোক কী রেল স্টেশন। অনেকসময়ই দেখা যায় যে, ট্রেন মিস করার ভয়ে ১ থেকে ২ ঘন্টা আগেই মানুষ স্টেশনে পৌঁছে যায়। তবে এবার থেকে আর সেটা করার কোনো উপায় থাকবে না। রেলের নয়া নিয়ম অনুযায়ী, এবার থেকে ট্রেনের সময়ের বহু আগেই স্টেশনে পৌঁছে গেলে তার জন্য দিতে হবে মোটা জরিমানা।

সম্প্রতি রেলের এই নয়া নিয়ম নিয়ে রেল বোর্ডের যুগ্ম নির্দেশক আশুতোষ মিশ্রের কথা অনুযায়ী, স্টেশনগুলোতে দ্বিতীয় শ্রেণীর প্রতিক্ষালয়গুলি নাকি এবার তুলে দেওয়া হচ্ছে। এবার থেকে সবকিছুর দায়িত্ব চলে যাচ্ছে এক বেসরকারি সংস্থার হাতে। আর খুব শীঘ্রই নাকি এই কাজ শুরু হতে চলেছে। আর এই ক্ষেত্রে বহু নিয়ম বদলাতে চলেছে।

সূত্রের খবর, এক্ষেত্রে আগের মতো আর বিনামূল্যে কোনো পরিষেবা মিলবে না। যাত্রীরা গিয়ে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত প্রতিক্ষালয়ে অপেক্ষা করতে পারবেন এবং সেক্ষেত্রে পরিষেবার জন্য ঘন্টায় ৩০ টাকা দিতে হবে। পাশাপাশি রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে এটাও জানা গেছে যে, দ্বিতীয় শ্রেণীর ওয়েটিং হল ছাড়া যাত্রীরা স্টেশনের খোলা জায়গায় এসে অপেক্ষাও করতে পারবেন না। খোলা প্লাটফর্মে বসতে গেলে কেবল মাত্র ট্রেন ছাড়ার আধ ঘন্টা আগেই সেই অনুমতি মিলবে।

তাই এবার থেকে অনেক আগে স্টেশনে অনেক আগেই পৌঁছে গেলে ঘন্টায় ৩০ টাকা হারে বাড়তি টাকা দিতে হবে যাত্রীদের। তবে ট্রেন লেট করলে কী উপায় হবে সেই নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি রেল কর্তৃপক্ষ। রেল কর্তৃপক্ষের এই নতুন নিয়ম নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে আলোচনা-সমালোচনা। রেলের অন্দরমহল তো বটেই সাধারণ মহলেও শুরু হয়েছে জল্পনা। তবে যাই হয়ে যাক, এই পরিষেবা চালু করতে চলেছে রেল কর্তৃপক্ষ।

এই প্রসঙ্গে, রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এক্ষেত্রে রেল জানিয়েছে যে, যাত্রীদের উপর চাপ পড়বে নিশ্চিত, তবে খরচ বাঁচাতে ও অযথা ভিড় এড়াতে এই ব্যবস্থা চালু করবে রেল। সূত্রের খবর, উচ্চ শ্রেণীর যাত্রীদের জন্য রেলের ওয়েটিং রুম থাকলেও সেই টাকা ভাড়ার মধ্যেই ধরে নেওয়া হয়। স্লিপার ক্লাসের যাত্রীদের থেকে সেই খরচ না নেওয়া হলেও প্রতিক্ষালয়ে রক্ষণাবেক্ষণে সব দায়িত্ব বেসরকারি সংস্থাকে দিয়ে চালানো হবে। সাফাই থেকে যাত্রী যাতায়াতের নথি ইত্যাদি সামলায় রেল কর্মীরা আর সেই সাথে রেলের ওপর ওঠা অনেক অভিযোগ থেকেও নিস্তার পাবে রেল।

Related Articles

Back to top button