অন্যান্যসেরা খবর

টুইটার বিতর্কের মাঝেই ‘যিশু খ্রিষ্ট’কে দেওয়া হল ব্লু টিক! এলন মাস্কের কোম্পানির কান্ড দেখে হইচই নেটমাধ্যমে

‘ইলন মাস্ক (Elon Musk) ও টুইটার’ নেট নাগরিকদের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এখন এই একটাই বিষয়বস্তু। যেদিন থেকে টুইটার দখল করেছেন সেদিন সিইও ছাঁটাই থেকে শুরু করে গণ হারে কর্মী ছাঁটাই, তার প্রতিটি পদক্ষেপ এখন মানুষের চর্চার কেন্দ্রবিন্দু। এই যেমন ইতিমধ্যেই সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, টুইটারে ব্লু টিকের খসাতে হবে ৮ ডলার টাকা।

এই বিষয়টি নিয়ে তরজা বাড়তেই ইলন মাস্কের স্পষ্ট জবাব, তার ইচ্ছাতেই চলবে টুইটার। প্রতি মাসে ৮ ডলার দিলে তবে নামের পাশে দেখা যাবে ব্লু টিক। তবে দেশ অনুযায়ী এই দামের তারতম্য হতে পারে। পাশাপাশি বলে রাখি, ব্লু টিকধারীরা পাবেন বিনামূল্যে নিবন্ধ পড়ার সুযোগ। সাবস্ক্রিপশন সহ দীর্ঘ ভিডিও এবং অডিও পোস্ট করতে পারবেন তারা।

তবে সম্প্রতি যে খবরটা সামনে এসেছে তা সত্যিই চমক লাগার মতো। সূত্রের খবর, নতুন ব্যবস্থা চালু হতেই ‘জিশুখ্রিস্ট’-র অ্যাকাউন্টও ভেরিফায়েড করে দিল টুইটার। নামের পাশে বসল ব্লু টিকও। টুইটারে গিয়ে ‘@জেসাস’ লিখে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন এই অ্যাকাউন্টটি।

ইলন মাস্কের নতুন নিয়ম অনুযায়ী ৮ ডলার খরচ করার ফলে প্রোফাইলটিকে ভেরিফায়েড করেছে টুইটার। পাশাপাশি জানিয়ে রাখি, টিক পাওয়ার জন্য কোনও অ্যাকাউন্টকে প্রকৃত ব্যক্তি বা সংস্থার হতে হবে তার কোনো মানে নেই। যেই ৮ ডলার টুইটারকে দেবে তার নামেই বসিয়ে দেবে ব্লু টিক।

আর যাদের নামের পাশে ইতিমধ্যেই ব্লু টিক রয়েছে তাদেরকে আবারও টাকা দিয়ে সাবস্ক্রাইব করতে হবে। আর তার নির্দিষ্ট সময়সীমা হল আগামী ৯০ দিন। আর তারমধ্যে না করা হলে ব্লু টিক হারাতে পারেন ব্যবহারকারীরা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ‘জিশুখ্রিস্ট’ নামক এই টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে প্রায়শই মজাদার টুইট করা হয়ে থাকে। তা ভাইরালও হয়ে যায় নিমেষের মধ্যে। ইতিমধ্যেই ৮ লক্ষ ফলোয়ারও হয়ে গেছে তার। এই যেমন দিন কয়েক আগেই পোস্ট করা হয়েছে ‘কেন মনে হচ্ছে যে আমার আমি নকল।’ নেটিজেনরা বেশ ভালোই উপভোগ বিষয়টিকে।

Related Articles

Back to top button