বিনোদনসেরা খবর

ছোট থেকেই মারপিটে ওস্তাদ! নিজের ভাইকে পাথর দিয়ে মেরে পালিয়ে যান সালমান খান!

বলিউডের মোস্ট এলিজেবল ব্যাচেলর বলতে সকলেই জানেন তাঁর নাম। তিনি হলেন সালমান খান। একাধিক প্রেম করা সত্বেও টেকেনি সেইসব সম্পর্ক। এখন পরিবারকে নিয়েই ব্যস্ত সালমান। যদিও ছোট থেকেই পরিবারের প্রত্যেক সদস্যদের খুব ভালোবাসেন তিনি। তাঁর ভাইবোনেরা তাঁর কাছে প্রিয়। সালমানের চার ভাই বোন। আরবাজ, সোহেল, আলভিরা এবং অর্পিতা এরা প্রত্যেকেই সালমানকে বড়ো দাদা হিসাবে ভালোবাসেন এবং শ্রদ্ধাও করে।

ছোটবেলা থেকেই খুব দুরন্ত স্বভাবের ছিলেন অভিনেতা। ভাইবোনদের নিয়ে সারাক্ষন মজা করতেন তিনি। মাঝেমধ্যেই তাঁদের পরিবারের নানা খুনসুটির ঘটনা ভাইরাল হয়ে যায়। সম্প্রতি এমনই এক ঘটনার কথা ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে জানা গেছে, একদিন ভাই সোহেলকে মেরে রক্তাক্ত করে দিয়েছিলেন তিনি। এতটাই দুরন্ত স্বভাবের ছিলেন বলিউডের সুপারহিট এই নায়ক।

দ্য কপিল শর্মা শো-তে এই ঘটনার বিষয়ে জানিয়েছিলেন সালমান। ছোটবেলায় তিনি আর আরবাজ খান তাঁদের ভাই সোহেলকে পাথর ছুঁড়ে মেরেছিলেন বলে জানিয়েছিলেন বলিউডের ভাইজান। এমনকি ভাইকে মেরে পালিয়ে গিয়েছিলেন দুজনে। রক্তাক্ত অবস্থায় কাঁদতে থাকলেও ভাইকে ধরেননি সালমান। সালমান খান বলেছিলেন যে এই ঘটনা অনেকদিন আগের, তারা তিন ভাই সিনেমা দেখছিলেন এবং পাথর নিয়ে একটা খেলা খেলছিলেন।

তিনি আরও বলেন যে খেলায় এতটাই মগ্ন ছিলেন যে ভুলবশত সোহেলের দিকে পাথর ছুড়ে মেরে দিয়েছিলেন তিনি। সোহেল খুব ছোট তখন, এরপর ডাস্টবিনের দিক থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় বেরিয়ে আসেন সোহেল। ওর মাথা ফেটে যায়, আর তখন ভয় পেয়ে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন আরবাজ ও সোহেল।

Related Articles

Back to top button