বিনোদনসেরা খবর

সুন্দরী হলেও সুন্দরী বলা যাবে না! অতিরিক্ত সৌন্দর্যের জন্য বিরক্তি প্রকাশ অভিনেত্রী পুনম ধিলানের

দাপুটে সুন্দরী, নাকি দাপুটে অভিনেত্রী? ঠিক কোন শব্দটা খাটে তার জন্য? ভক্তদের চোখে তিনি বলিউডের অন্যতম সুন্দরী নায়িকা। কিন্তু তার আবার এই শব্দটায় অ্যালার্জি। হয়তো শুনে অবাক হচ্ছেন যে, কোন অভিনেত্রী নিজের রূপের প্রশংসায় খুশি হননা? কিন্তু স্মৃতি বলতে এই বিষয়টায় তিনি বাকিদের চেয়ে সম্পূর্ণ ভিন্ন। সৌন্দর্যের প্রশংসায় গলে যাওয়া তো দূরের কথা, উল্টে তাকে কেউ ‘সুন্দরী’ বললে মেজাজ হারাতেন তিনি।

আজ আমরা শোনাবো অভিনেত্রী পুনম ধিলানের গল্প। সাল ১৯৭৮-এ ‘ত্রিশূল’ ছবির হাত ধরে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। সেই সময় বয়স ছিলো মাত্র ১৬ বছর। ইন্ডাস্ট্রিতে পা দিয়েই মন জয় করে নেন ভক্তকুলের। যদিও সেই সময় তার অভিনয় নয়, বরং প্রাধান্য পেয়েছিলো তার সৌন্দর্য। এই রূপই অধিকাংশ দর্শকের নজর কেড়েছিল। আর এতেই গোঁসা হত অভিনেত্রীর।

সাম্প্রতিক একটা ইন্টারভিউতে পুনমকে প্রশ্ন করা হয় যে, লিডিং লেডি হিসাবে কাজের সময় এমন কোন প্রশংসাবার্তা প্রায়শই তার কানে আসতো, আর কোন কথা তার বিরক্তির কারণ হতো? এই প্রশ্নের উত্তরে পুনম জানান, ‘দুটো প্রশ্নের উত্তরই হচ্ছে আমার সৌন্দর্য নিয়ে লোকেদের মতামত’। শুনতে অবাক লাগলেও ঠিক এই কথাটাই শোনা গেছে তার মুখে।

পুনমের কথায়, ‘আমাকে সবাই বলত, ’তুমি কত্তো সুন্দরী। আর সমালোচকরাও সেটাই লিখতো আমি সুন্দরী। কিন্তু আমার কাছে সেটা প্রশংসা বাক্য ছিল না। আমার কোনও অবদান নেই নিজের রূপের পিছনে। সেটা ভগবানের দান, আমার বাবা-মা’র দান। আমি নিজের অভিনয় দক্ষতা নিয়ে প্রশংসা শুনতে চাইতাম, রূপের জন্য নয়। আর সৌন্দর্য নিয়ে ওইসব প্রশংসা শুনে আমার গা জ্বলত’।

এই প্রসঙ্গের রেশ ধরে তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, যে অধীক সুন্দরী হওয়ার কারণেই কি ভালো অভিনেত্রীর তকমাটা জোটেনি তার? উত্তরে পুনম বলেন,’এটা ঠিক, শুরুর দিকে আমি অভিনয়ের কিছুই জানতাম না। আমার কতই বা বয়স ছিল? ১৫-১৬। আমি খুবই কাঁচা এবং অনভিজ্ঞ অভিনেত্রী ছিলাম। তবে ধীরে ধীরে অভিনয়টা আয়ত্ব করার চেষ্টা করি। কিন্তু সবাই শুধু বলত ও কত্তো সুন্দরী। এর বাইরে আর কেউ বেরোতে পারতো না’।

প্রসঙ্গত, খুব শীঘ্রই মুক্তি পেতে চলেছে পুনম ধিলানের নতুন ছবি ‘প্ল্যান এ প্ল্যান বি’। আসন্ন এই ছবিতে পুনমের সাথে অভিনয় করেছেন তামান্না ভাটিয়া, রীতেশ দেশমুখ। তবে বড়ো পর্দায় নয়, বরং জনপ্রিয় ওটিটি প্লাটফর্ম নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি। অপরদিকে হৃতিক-সইফের ‘বিক্রম ভেদা’-তেও দেখা যাবে অভিনেত্রীকে‌। মজার বিষয় হলো দুটি ছবিই মুক্তি পাবে আগামী ৩০ শে সেপ্টেম্বর অর্থাৎ আসন্ন শুক্রবারে।

Related Articles

Back to top button