বিনোদনসেরা খবর

‘বাংলা ইন্ডাস্ট্রি শ্মশান হলে আপনি ডোম’, প্রসেনজিতের ভাষণকে ধুইয়ে দিলেন প্রযোজক রানা সরকার

বিগত কয়েক মাস ধরেই টলিউডের অন্দরে নানা রকম কেচ্ছা কাহিনী শুনতে পাওয়া যাচ্ছে। আর যেখানে বারবার উঠে আসছে টলিউড ইন্ডাস্ট্রি ওরফে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়-এর(Prasenjit Chatterjee) নাম। প্রয়াত অভিনেতা অভিষেক চ্যাটার্জীও একসময় প্রসেনজিৎ ও ঋতুপর্ণার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন। আবার আরেক অভিনেতা চিরঞ্জিত চক্রবর্তী একসময় জানিয়েছিলেন, প্রসেনজিৎ খুব প্রভাবশালী ইন্ডাস্ট্রিতে ওর বিরুদ্ধে কারোর কিছু বলার সাহস নেই। যদিও এসব ব্যাপার নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি বুম্বাদা।

একসময় অভিষেক চ্যাটার্জী অভিযোগ জানিয়েছিলেন, সেই সময় নাকি তার সই করা ২২ টি সিনেমা থেকে অভিষেককে বাদ দিয়ে দিয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। কিন্তু তবুও তিনি কোনরকম মন্তব্য না করে সে সময় অভিনয় জগৎ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন। তবে এইসব বিতর্কের মধ্যেও অভিনেতা সোহমের প্রযোজনার ছবি ‘কলকাতার হ্যারি’র ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রসেনজিৎ। আর সেখানে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বাংলা সিনেমার বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খোলেন প্রসেনজিৎ।

তিনি বলেন, “বাংলা ছবি তো আপনাদেরও ছবি। এবার আপনাদের একটু দায়িত্ব পালন করতে হবে। আরআরআর-এর মতো দক্ষিণী ছবি ৩ দিনে ৪০০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে। আমাদের ছবির ব্যাপারে ভালো ভালো লিখুন। ভালোভাবে প্রচার করুন। কিছু ভুল হলে যতটা সম্ভব ওভারলুক করে যান। নিজেদেরই তো ইন্ডাস্ট্রি। নাহলে আমাদের ইন্ডাস্ট্রি শ্মশান হয়ে যাবে।” আর প্রসেনজিতের কথার পরিপ্রেক্ষিতে প্রযোজক রানা সরকার তার সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে কার্যত ধুইয়ে দেন বুম্বাদাকে।

তিনি লেখেন, “হঠাৎ শ্মশানের ভয় হচ্ছে আপনার? বাংলা ইন্ডাস্ট্রি শ্মশান হলে ডোম তো আপনিই। আপনি রিটায়ার করুন, দেখবেন ভয় কমে গেছে, এতদিনের পাপের জ্বালায় আপনার ভয় এখন বেশি, বাকিরা কিন্তু লড়ে যাচ্ছেন”। এরপরেই প্রসেনজিৎ কে রানার পরামর্শ “ভালো থাকুন, Fake ডায়লগবাজি কমান তাহলেই শ্মশান থেকে দূরে থাকবেন। আর মাননীয় দর্শকমন্ডলী, ডায়লগবাজীতে এপ্রিল ফুল হবেন না, দলে দলে বাংলা সিনেমা দেখতে হলে যান। সোহম-প্রিয়াঙ্কা অভিনীত রাজদীপের ঘোষের ছবি “কলকাতার Harry” সুপারহিট করুন।”

Related Articles

Back to top button