বিনোদনসেরা খবর

২০০ কোটির সম্পত্তি থেকে কানাকড়িও দেবেন না একমাত্র মেয়েকে! নিজের সিদ্ধান্ত সাফ জানালেন শত্রুঘ্ন সিনহা

বলিউডের একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা ছিলেন শত্রুঘ্ন সিনহা। সে সময় দাপিয়ে অভিনয় করে বেড়িয়েছেন তিনি। একের পর এক সুপারহিট সিনেমা দর্শকদের উপহার দিয়েছেন অভিনেতা। ১৯৮০ সালের পুনাম সিনহাকে বিয়ে করেন তিনি। তার তাদের দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। দুই ছেলে লব এবং কুশ কেউই বলিউডে সেভাবে নিজেদের জায়গা করে উঠতে পারেননি। কিন্তু মেয়ে অভিনেত্রী সোনাক্ষি সিনহা(Sonakshi Sinha) বলিউডে টিকে রয়েছেন।

যদিও তিনি বর্তমান সময়ে অভিনেত্রীদের মত এত জনপ্রিয়তা পাননি কিন্তু তবুও মেয়ের কাজে গর্ববোধ করেন বাবা। খুব অল্প কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। কিন্তু ইনস্টাগ্রামে প্রচুর ফ্যান ফলোয়িং আছে সোনাক্ষির। সালমান খানের দাবাং সিনেমা দিয়ে বলিউডে পা রাখেন সোনাক্ষী। শাহিদ কাপুর, অজয় দেবগন, সইফ আলী খান সহ আরো অন্যান্য অভিনেতার সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি। তার চোখের চাউনিতে বেসামাল হয়েছেন অনুরাগীরা।

ছেলেরা বাবার মুখ সেভাবে উজ্জ্বল করতে না পারলেও মেয়ের সোনাক্ষি তা করে দেখিয়েছে বলে ভীষণ খুশি এবং গর্বিত বাবা শত্রুঘ্ন সিনহা। ঠিক এই কারণের জন্য নিজের সমস্ত সম্পত্তি থেকে মেয়েকে বঞ্চিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। আর এই মেয়েকে সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত রাখার কথা দু’বছর আগে ঘোষণা করেছিলেন তিনি।

জানা গিয়েছে, শত্রুঘ্ন সিনহার মোট ১৯৩ কোটি টাকার ওপরে সম্পত্তি রয়েছে। কিন্তু এই টাকার কানাকড়িও পাবেন না সোনাক্ষী। সবটাই তার দুই ছেলের মধ্যে ভাগ করে দেবেন অভিনেতা। শত্রুঘ্ন মনে করেন তার মেয়ে নিজের গুণে সবকিছু অর্জন করেছে এবং আগামীদিনেও করবে আর এতেই তার চলে যাবে। তার বাবার সম্পত্তির ওপর নির্ভরশীল নয়। তাই মেয়েকে কিছুই না দিয়ে দুই ছেলের মধ্যে সমস্ত কিছু ভাগ করে দিতে চান শত্রুঘ্ন সিনহা।

Related Articles

Back to top button