বিনোদনসেরা খবর

‘এটাই প্রেম করার বয়স’, ছেলে অভিমন্যুকে নিয়ে মুখ খুললেন শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি

টলিউডের(Tollywood) অন্যতম জনপ্রিয় ও সুন্দরী অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়( Srabanti Chatterjee)। খুব ছোট বয়স থেকেই তিনি অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয়ের পর একেবারে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শ্রাবন্তী। একদিকে যেমন কম বয়সে অভিনয় জগতে পা রাখেন ঠিক তেমনি মাত্র ১৬ বছর বয়সে প্রথম বিয়ে করেছিলেন অভিনেত্রী।

আর সেই কম বয়সেই তার ছেলে অভিমুন্যর(Abhimanyu Chatterjee) মা হন তিনি। ছেলের সঙ্গে তাঁর বয়সের ফারাক অনেক কম। ছোট থেকেই বন্ধুর মতো অভিমন্যুর সঙ্গে মিশতে ভালোবাসেন অভিনেত্রী। রাজিবের সঙ্গে প্রথম বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর দুবার বিয়ে করলে সেই বিয়ে টেকেনি তার। কিন্তু ছেলে কখনোই মায়ের সঙ্গ ছাড়েনি। একজন সিঙ্গেল মাদার হিসেবে অভিমুন্যকে বড় করেছেন তিনি।

মায়ের সুখে-দুঃখে যেকোনো সিদ্ধান্ত সব সময় পাশে থাকে ছেলে ঝিনুক। সম্প্রতি আনন্দবাজার অনলাইনে সঙ্গে সাক্ষাৎকারে ছেলের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ও ছেলেকে নিয়ে নানান কথা শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। তিনি জানিয়েছেন যে তার জীবনের প্রত্যেক পদক্ষেপে পাশে থাকে ঝিনুক এবং সব কাজকে সমর্থন করে। তিনি যে এত অল্প বয়সে মা হয়েছেন সেটা ভেবেই এখন তার অবাক লাগে। কিন্তু তার ছেলে ছিল এই বয়সেই অনেক পরিণত বলেও জানিয়েছেন শ্রাবন্তী।

তার ছেলেও খুব কম বয়সে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছেন। প্রায় তিন বছর ধরে মডেল দামিনী ঘোষের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে ঝিনুক। আর ছেলেকে পূর্ণ সমর্থন করেন অভিনেত্রী নিজেই। দামিনীর সঙ্গে খুব ভালো সম্পর্ক রয়েছে শ্রাবন্তীর। এই প্রেম প্রসঙ্গে অভিনেত্রী জানিয়েছেন যে এটাই প্রেম করার বয়স তাই এই নিয়ে অবাক হওয়ার মত কিছুই নেই।


তার ছেলেও কি মায়ের মত অভিনয় জগতে পা রাখবেন? এ প্রশ্নের উত্তরে শ্রাবন্তী বলেন, অভিমুন্য টলিউডে আসবেন। তবে মায়ের মতো ক্যামেরার সামনে নয় বরং ক্যামেরার পেছনে কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে তার। ঝিনুক এখন অনেকটাই ছোট। তাই পড়াশুনা শেষ করে তারপরে টলিউডে আসুক এমনটাই জানান শ্রাবন্তী। পরিচালক শ্রীজাত বন্দ্যোপাধ্যায় ‘মানবজমিন’ ছবির শুটিংয়ে প্রেমিকা দামিনী ঘোষকে নিয়ে এসেছিলেন অভিমুন্য। সেখানে কোনো বিশেষ দায়িত্ব পাননি ঠিকই। তবে অবজার্ভার হিসেবে পরিচালনার কাজ ক্যামেরার শর্ট সমস্ত কিছু শিখছেন যিনি। ভবিষ্যতে পরিচালক হিসেবে কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে তার।

Related Articles

Back to top button