বিনোদনসেরা খবর

বিশ্বসুন্দরী হয়েও জোটেনি কাজ, ১০ বছর কেন অভিনয়ে ফেরেননি সুস্মিতা সেন, নিজেই জানালেন অভিনেত্রী

ভারতের প্রথম মিস ইউনিভার্স হয়েছিলেন সুস্মিতা সেন। ১৯৯৪ সালে প্রথম ভারতীয় হিসাবে মিস ইউনিভার্সের খেতাব পেয়েছিলেন তিনি। এরপরেই বলিউডে কাজের অফার আসে তার কাছে। অভিনেত্রী হিসেবে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন সুস্মিতা। তবে তার সমসাময়িক নায়িকাদের বলিউডে দেখা গেলেও বহু বছর তাকে আর বড় পর্দায় দেখতে পাওয়া যায় না। যদিও এর পেছনে রয়েছে বিশেষ কারণ। আর সেই কথাই খোলসা করেছেন অভিনেত্রী নিজেই।

মাত্র ১৮ বছর বয়সে ফেমিনা মিস ইন্ডিয়ার মুকুট জিতেছিলেন তিনি। এরপর দু’বছর পর ১৯৯৬ সালে বলিউডে ‘দস্তক’ সিনেমাতে ডেবিউ করেন সুস্মিতা সেন। তারপর থেকে অভিনয় তার পেশা হয়েছিল। এরপর একের পর এক সিনেমায় অভিনয় করে দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন। তার অভিনয় প্রতিভা দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন দর্শকেরা। বেশকিছু পুরস্কার জিতেছিলেন অভিনেত্রী। তবে ২০১০ সালে ফারদিন খানের বিপরীতে ‘দুলহা মিল গায়া’ ছবিতে তাকে শেষ দেখা গিয়েছিল।

এরপর দীর্ঘ ১০ বছর আর ক্যামেরামুখী হননি অভিনেত্রী। এত সাফল্যের পর হঠাৎ করে উধাও হওয়ার কারণ বেশ ভাবিয়ে ছিল তার অনুগামীদের। তবে তাকে আর বলিউডে সত্যিই দেখা যায়নি। কিন্তু দশ বছর পর আবার কামব্যাক করেছেন তবে বলিউডে নয়, ওটিটিতে ‘আর্যা’ ওয়েব সিরিজ দিয়ে অভিনয়ে ফিরছেন সুস্মিতা। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে বলিউডের বিরুদ্ধে তারা অভিমানের সুর ধরা পড়েছে তার গলায়।

সুস্মিতা জানিয়েছেন, ‘অভিনয় থেকে যে ১০ বছরের যে বিরতি আমি নিয়েছিলাম, সেই সময়ে নিজের জীবনের লক্ষ্যগুলোকে আরও ভালোভাবে বুঝতে পেরেছিলাম আমি। নিজের কাছে আরও স্পষ্ট হয়েছিল কেরিয়ার ও জীবনে থেকে কি কি আমি চাই আর কি কি চাই না। বড়পর্দায় ভালো চরিত্রে প্রস্তাব পাওয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই আমার বয়স একটি ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়ায়। এরপরে তিনিই আরো বলেন যে তাকে যে চরিত্রগুলি দেওয়া। হয়েছিল সেগুলি তার পছন্দ হয়নি।

সুস্মিতা আরো বলেন, ‘কাজ পাওয়ার জন্য আসলে আমি খোঁজাখুঁজি করতে পারি না। মুখ ফুটে কারও কাছে কাজ চাওয়ার ব্যাপারে একটা ঘোর অনিচ্ছা কাজ করে আমার মধ্যে। ঠিক কীভাবে যে কাজ চাইতে হয়, সেই ব্যাপারটি আমার প্রায় অজানা। নিজে থেকে কাজ চাওয়ার ব্যাপারে আমি খুবই কাঁচা একজন মানুষ।’ তবে আর্যা ওয়েবসিরিজে তার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে সব মহলে।

Related Articles

Back to top button