Papiya Paul

আর একঘেয়ে দীঘা-দার্জিলিং নয়, ১৫০০ টাকার মধ্যে বেড়িয়ে আসুন বাড়ির কাছের এই পাহাড়-জঙ্গল ঘেরা এলাকায়

নিউজশর্ট ডেস্কঃ আর মাত্র কয়েকটা দিন অপেক্ষা। তারপরেই পশ্চিমবঙ্গেই জাঁকিয়ে বসবে শীত। ইতিমধ্যে শীতের হালকা আবহাওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। শীতকালে বহু মানুষই এদিক-সেদিক ঘুরতে(Travel) বেরিয়ে পড়েন। এই সময় মিঠে রোদ গায়ে মেখে ঘুরতে যাওয়ার মজাই যেন আলাদা। ভ্রমন প্রিয় বাঙালির কাছে শীতকাল মানেই পারফেক্ট ঘুরতে যাওয়ার সময়।

   

শীত পড়তে না পড়তেই নতুন ডেস্টিনেশনে ঘুরতে যাবার প্ল্যান ইতিমধ্যেই সেরে ফেলেছেন বহু বাঙালী। আপনিও কি সেই দলে পড়ছেন? তবে কোথায় ঘুরতে যাবেন সেটা বুঝতে পারছেন না? আবার বাজেট কম বলে অল্প খরচার মধ্যে ঘুরতে যেতে চাইছেন? তাহলে আজকের এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র আপনার জন্য।

এই প্রতিবেদনে পশ্চিমবাংলার মধ্যেই এক সুন্দর লোকেশনের খবর আপনাদেরকে জানাবো। এখানে গেলে আপনি যেমন পাহাড় দেখতে পারবেন তেমনি অল্প খরচের মধ্যে শান্তিতে ঘুরে আসতে পারবেন। আজকের ডেস্টিনেশন হল শুশুনিয়া পাহাড়(Susunia Hill)। বাঁকুড়ায় লাল মাটি, ঘোড়া, প্রাচীন মল্লভূমির রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকা সবকিছুই দর্শনীয় জায়গা। একদিকে পাহাড়, অন্যদিকে জঙ্গল, বাঁকুড়ার শুশুনিয়া পাহাড় ঘুরতে যাওয়ার জন্য একদম পারফেক্ট ডেসিনেশন।

এখানে মুকুটমণিপুর রয়েছে। যদিও বহু মানুষ শুশুনিয়া পাহাড় দেখার জন্য বারবার এখানে চলে আসেন। এই পাহাড় বেয়ে আবার বয়ে চলেছে ঝরনা। এখানকার লোকেরা এটিকে পবিত্র বলে মনে করে। পাহাড়ের গায়ে প্রাচীন শিলালিপি রয়েছে। রাজা চন্দ্র বর্মনের শিলালিপি পাহাড়ের দুর্গম স্থানের সংরক্ষিত রাখা হয়েছে। শহরের কোলাহল, যানজট এড়িয়ে একদম অল্প সময়ের মধ্যে ঘুরে আসার জন্য পশ্চিমবাংলার অন্যতম সুন্দর ঘোরার জায়গা এই বাঁকুড়ার শুশুনিয়া পাহাড়। আপনিও যদি কম খরচের মধ্যে কোথাও ঘুরতে যেতে চান তাহলে এখানে অবশ্যই ঘুরে আসতে পারেন।