বিনোদনসেরা খবর

পানিপথ থেকে পৃথ্বীরাজ, ঐতিহাসিক চরিত্রগুলিকে হাসির খোরাক বানিয়ে ফেলেছেন এই ৫ বলিউড তারকা

যখনই কোনো ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটের উপর ভিত্তি করে ছবি তৈরি করা হয় তখন খুব স্বাভাবিকভাবেই যে শিল্পী চলচ্চিত্রের মূখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন তার উপর অনেক গুরুদায়িত্ব এসে বর্তায়। কারণ যখনই আমাদের ইতিহাসকে দর্শকদের সামনে তুলে ধরা হয় তখন না শুধু পর্দায় ইতিহাসের গল্প লেখা হয়, বরং সেই সময়কার নায়কের জীবন কাহিনীও দর্শকদের কাছ অবদি পৌঁছে দেওয়া হয়। তাই কাহিনীর মূখ্য চরিত্রের থেকে সবার একটু বেশি প্রত্যাশা থাকাই স্বাভাবিক।

কিন্তু কখনও কখনও কিছু অভিনেতা-নেত্রী তাদের ওভার অ্যাক্টিংয়ের মাধ্যমে নষ্ট করে ফেলে আমাদের প্রাচীন কালের এই অজানা গল্পগুলি। এমনও দেখা গেছে যে, মানুষ না চাইলেও দুর্দান্ত গল্পে ভরপুর এই চলচ্চিত্রগুলিকে বয়কট করতে বাধ্য হয়েছে। এমনই কিছু কলাকুশলীদের নাম বলতে যাচ্ছি এই প্রতিবেদনে।

১) অর্জুন কাপুর : ভারতীয় ইতিহাসের ওপর ভিত্তি করে তৈরি পানিপথ ছবিতে কাজ করেছেন অর্জুন কাপুর। এই ছবিতে সদাশিব রাও-এর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। অর্জুন ছাড়াও ছবিতে অপর এক মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন সঞ্জয় দত্ত। ছবিতে অর্জুনের অভিনয় এতোটাই খারাপ ছিলো যে তাকে দেখে মনেই হয়নি কোনো গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি।

২) অক্ষয় কুমার : সম্প্রতি, সম্রাট পৃথ্বীরাজ ছবিতে প্রধান চরিত্র পৃথ্বীরাজের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন অক্ষয় কুমার। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, নির্মাতাদের বারংবার বলে দেওয়া সত্ত্বেও নিজের ইচ্ছেমতো ছবিতে কাজ করেছিলেন তিনি। ফলস্বরূপ ছবি মুক্তির পর দর্শকদের মত অনুযায়ী তার অভিনয় নাকি পৃথ্বিরাজের ছায়ার যোগ্যও ছিলোনা।

৩) কঙ্গনা রানাউত : মণিকর্ণিকা ছবিতে রানী লক্ষ্মীবাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন কঙ্গনা রানাউত। ছবিটি জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছে। কিন্তু আজও লোকে তাকে চলচ্চিত্রে লক্ষ্মীবাঈ চরিত্রের জন্য মোটেও উপযুক্ত মনে করেনা।

৪) শাহরুখ খান : নিজেকে একবার ভারতীয় যোদ্ধা রূপে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছিলেন শাহরুখ খান রং যদিও তার সেই চেষ্টা রিতিমত ব্যর্থ প্রমাণিত হয়। অশোকা ছবিতে, তিনি করিনা কাপুরের সাথে একটি অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করে বিপদ ডেকে আনেন। এরপরই ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে ছবিটি।

৫) আমির খান : আমির খানের ছবি মঙ্গল পান্ডে সেই সময়ে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। কিন্তু অনেকের মতে, ছবিতে রানি মুখার্জির সঙ্গে আমির খানের অন্তরঙ্গ দৃশ্য দেখিয়ে ভারতীয় ইতিহাসের অপমান করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button