বিনোদনসেরা খবর

গলায় সাক্ষাৎ সরস্বতীর বাস, রইল ভারতের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ৫ সঙ্গীতশিল্পীর সেরা কাহিনী

গান হল ভারতীয় চলচ্চিত্রের প্রাণ। বলিউডে কোনো ছবিই গান বা মিউজিক ছাড়া তৈরি হয় না। আর মানুষের সুরের খিদে মেটাতে অসাধারণ সব গানের পসরা সাজিয়ে হাজির হয়েছে দেশের খ্যাতনামা সব সঙ্গীত শিল্পীরা। তাদের সুর এবং কণ্ঠ যুগে যুগে শ্রোতাদের মন্ত্রমুগ্ধ করেছে। এই নিবন্ধে আমরা ভারতের এমন ৫ জন সেরা সঙ্গীত শিল্পীর কথা বলবো যাদের কণ্ঠের জাদুতে মোহাচ্ছন্ন হয়েছে কোটি কোটি মানুষ।

1) কিশোর কুমার : জেনে অবাক হবেন যে, কিশোর কুমার গান গাওয়ার কোনো প্রশিক্ষণ নেননি। তবুও, তিনি হিন্দি চলচ্চিত্রের সবচেয়ে জনপ্রিয় গায়কদের একজন। একাধিক গানে নিজের কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। সঙ্গীত জগতে তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। প্রসঙ্গত, কিশোর কুমার প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসেবে ৮ টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জিতেছেন তিনি যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক।

2) মহম্মদ রফি : কিশোরের পর আর যদি কারো নাম স্বর্নাক্ষরে খোদাই করা হয়ে থাকে তাহলে তিনি হলেন মহম্মদ রফি। এযাবৎ দূর্দান্ত সব গান উপহার দিয়েছেন সঙ্গীতপ্রেমীদের। এর মধ্যে শাম্মী কাপুরের জন্য তাঁর গাওয়া গানগুলি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলো। তার গান আজও একইরকম নতুন রয়ে গেছে।

3) লতা মঙ্গেশকর : কথা হচ্ছে ভারতের শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত শিল্পীদের আর সেই তালিকায় স্বর্গীয় লতা মঙ্গেশকরের নাম আসবেনা তা হতেই পারেনা। চল্লিশের দশক থেকে শুরু করে মৃত্যুর আগে পর্যন্ত গানের মধ্যেই বেঁচে ছিলেন তিনি। ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট ছবির নায়িকা থেকে শুরু করে নতুন প্রজন্ম সকলের জন্য গান গেয়েছেন তিনি।

4) উদিত নারায়ণ : কিশোর, রফি এবং মুকেশের প্রয়াণের পর ভারতীয় সঙ্গীত জগতে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছিল তা পূরণ করেছিলেন উদিত নারায়ন। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে গান গেয়েছেন তিনি। পাশাপাশি শ্রোতাদের হৃদয়ে ঠাঁই করে নিয়েছেন তাঁর কণ্ঠে এবং তাঁর গাওয়া গানে। শাহরুখ খানের অনেক ভালো গান উদিত নারায়ণ গেয়েছেন।

5) শ্রেয়া ঘোষাল : সঞ্জয় লীলা বানসালির দেবদাস ছবিতে প্রথমবার গান গাওয়ার সুযোগ পান তিনি। তার কণ্ঠে স্বয়ং সরস্বতী বাস করেন বললেও অত্যুক্তি হবেনা। মেলোডিয়াস গান থেকে আইটেম গান সবেতেই সমান পারদর্শী তিনি।

Related Articles

Back to top button