বিনোদনসেরা খবর

দ্বাদশ শ্রেণীতে ফেল, করেছিলেন রাঁধুনির কাজ, সেই ধনুশ আজ কাঁপাচ্ছেন সাউথের ইন্ডাস্ট্রি

সাউথ ইন্ডাস্ট্রির এক জনপ্রিয় নাম ‘ধনুশ’। আট থেকে আশি সকলেই তাকে চেনেন যে, তিনি এক দূর্দান্ত অভিনেতা। দীর্ঘ ফিল্মি কেরিয়ারে উপহার দিয়েছেন একাধিক সুপারহিট ছবি। বর্তমানে গোটা দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতে রাজ করলেও কেরিয়ারের শুরুটা কিন্তু এতোটাও মসৃন ছিলোনা এই অভিনেতার।

রোগা পাতলা কৃষ্ণবর্ণের ছেলেটি যখন ইন্ডাস্ট্রিতে আসে সেই সময় অনেকেরই কটাক্ষের শিকার হয়েছিলেন তিনি। এই ছেলে হবে হিরো, এমন অনেক প্রশ্নবানে জর্জরিত হতে হয়েছে তাকে। আর সেইসব কটাক্ষকে হাতিয়ার করে তথাকথিত নায়ক সুলভ চেহারা না থাকা সত্ত্বেও নিজের আলাদা পরিচিতি তৈরি করে দেখিয়ে দিয়েছেন রাজার পরিচয় তার কাজে হয় চেহারায় নয়।

মূলত তার খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে ‘হোয়াইট দিস কোলাভেরি ডি’ গান এবং রানঝানা ছবির মাধ্যমে। এইমুহুর্তে তার খ্যাতি শুধু ভারতেই নয় পৌঁছে গেছে বিদেশেও। সম্প্রতি তিনি খবরের শিরোনামে আছেন ‘দ্য গ্রে ম্যান’ ছবিতে রায়ান গসলিং, ক্রিস ইভান্স এবং আনা ডি আরমাসের মতো তারকাদের সাথে স্ক্রিন শেয়ার করার জন্য। ধানুশ বলিউডে এ পর্যন্ত ‘রানঝানা’, ‘শমিতাভ’ এবং ‘আতরঙ্গি রে’-এর মতো ছবিতে কাজ করেছেন।

যাইহোক, ধনুশের জীবনের এইসব কথা তো কমবেশি প্রায় সকলেরই জানা।‌ তাই আজ আমরা এমন কিছু কথা বলবো যা সম্পর্কে অধিকাংশ মানুষই অবগত নন।

1. কোলাভেরি ডি : একসম ধনুশের লেখা এবং গাওয়া এই গানটিতে মজেছিলো গোটা দেশ। জেনে অবাক হবেন যে ধনুশ ‘কোলাভেরি ডি’ গানটি লিখেছিলেন মাত্র ৬ মিনিটে এবং এর প্রথম রেকর্ডিং শেষ করেছিলেন ৩৫ মিনিটের মধ্যে।

2. ধনুশের আসল নাম : গোটা ইন্ডাস্ট্রি জুড়ে ধনুশ নামে পরিচিত হলেও তার আসল নাম হলো ভেঙ্কটেশ প্রভু কস্তুরী রাজা ।

3. হটেস্ট ভেজিটেরিয়ান সেলিব্রিটি : জানিয়ে রাখি বিখ্যাত সংস্থা পেটা (PETA) অভিনেতাকে ‘হটেস্ট ভেজিটেরিয়ান সেলিব্রিটি’ পুরস্কারে ভূষিত করেছেন।

4. শিবের ভক্ত : আদিদেবতা মহাদেবের ভীষণ ভক্ত তিনি। এমনকি নিজের দুই পুত্র যথরা এবং লিঙ্গা’র নামও রেখেছেন দেবাদিদেবের নামানুসারে।

5. দ্বাদশ শ্রেণীতে অনুত্তীর্ণ: ধনুশ যখন দ্বাদশ শ্রেণীতে পঠনরত সেই সময় এক কিশোরীর প্রেমে পড়েন। দূর্ভাগ্যজনক ভাবে সেই বছর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেননি তিনি। আর সেই কারণেই সেই মেয়েটি ছেড়ে চলে যায় বছর ১৬’র ধনুশকে।

6. একজন শেফ হতে চেয়েছিলেন : খুব কম মানুষই জানেন যে এই দূর্দান্ত অভিনেতা আসলে অভিনয় জগতে আসতে চাননি। তার দুনিয়া ছিলো রান্নাবান্না নিয়ে। নিত্যনতুন মজাদার ডিশ বানাতে ভালোবাসতেন তিনি। ইচ্ছে ছিলো শেফ হবেন এবং এর জন্য তিনি হোটেল ম্যানেজমেন্টও পড়তে চেয়েছিলেন।

7. বাড়ির চাপে অভিনয়ে যোগ দেন : পরীক্ষায় ফেল করার পর বাড়ির সদস্যরা পড়াশোনার বদলে সিনেমায় যোগ দেওয়া ভালো। নিজের অমতেই ইন্ডাস্ট্রিতে আসেন ধনুশ। তার দাদা ছিলো একজন পরিচালক এবং লেখক। তার হাতে ধরেই ইন্ডাস্ট্রি দর্শন তার।

প্রসঙ্গত, আজ অনেকেরই হয়তো একথা মনে হতে পারে যে, ভাগ্যিস তার পরিবার তাকে জোর করেছিলো নাহলে এমন অভিনেতা হয়তো আমরা পেতামন। ধনুশের পুরস্কারের কথা বললে এযাবৎ তিনি ৪টি জাতীয় পুরস্কার, ৭ টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, ১৪ টি সিমা পুরস্কার, ৯ টি বিজয় পুরস্কার, ৫ টি ভিকটান পুরস্কার এবং ৫টি এডিসন পুরস্কার জিতে নিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button