বিনোদনসেরা খবর

বেশি অহংকার নাকি রাগ! টুইঙ্কল খান্নাকে চড় মারতে গেছিলেন আমির খান, পুরোনো অতীত নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

নব্বইয়ের দশকের অন্যতম জনপ্রিয় জুটি হলো সুপারস্টার আমির খান এবং টুইঙ্কল খান্না। ‘মেলা’ ছবিতে একসাথে স্ক্রিন শেয়ার করতে দেখা গেছে দুজনকে। ছবিতে আমির এবং টুইঙ্কলের জুটি ব্যাপক পছন্দ করেছিল দর্শকমহল। আর সেই কারণেই বেশ লম্বা সময় ধরে বক্স অফিস মাতিয়ে রেখেছিল ছবিটি।

এই দুজনেল অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রির কথা সকলেই জানলেও একথা খুব কম মানুষই জানেন যে, আমির এবং টুইঙ্কল ‘মেলা’ ছবির পর থেকেই খুব ভালো বন্ধু। তবে অক্ষয় কুমারের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর চলচ্চিত্র জগত থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নিয়েছেন টুইঙ্কল।

বিয়ের পর থেকেই অভিনয় ছেড়ে লেখালেখির জগতে প্রবেশ করেন টুইঙ্কল। যেখানে আমির এখনও পর্যন্ত চলচ্চিত্র জগতে যথেষ্ট সক্রিয়। সম্প্রতি টুইঙ্কল তার আর আমিরের কিছু পুরোনো মেমোরি প্রকাশ্যে এনেছেন যা শোনার পর রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেটপাড়ায়।

আসলে, সম্প্রতি, টুইঙ্কল খান্না তার বই ‘মিসেস ফানিবোনস’ লঞ্চের সময় আমির এবং তার মধ্যে ঘটে যাওয়া বেশ কিছু মজাদার ঘটনার কথা শেয়ার করেছেন। বই লঞ্চিংয়ের দিন অভিনেত্রীর সাথে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন আমির খান, অক্ষয় কুমার এবং করণ জোহর। এই সময়ই মিডিয়া সাক্ষাৎকারে টুইঙ্কল জানান যে, একবার আমির তাকে অক্ষয়ের কারণে চড় মারতে উদ্যত হয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, ‘মিসেস ফানিবোনস’ বইয়ের লঞ্চের সময় করণ জোহর আমিরকে টুইঙ্কল খান্নার অভিনয় দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন করেছিলেন। কিন্তু আমিরের পরিবর্তে, অভিনেত্রী নিজেই এই প্রশ্নের উত্তর দেন এবং জানান যে কী কারণে একটি ছবির শুটিং চলাকালীন অক্ষয়ের কারণে আমির তাকে চড় মারতে গেছিলেন।

অভিনেত্রীর কথায়, “শুট চলাকালীন, আমির আমাকে জিজ্ঞাসা করেছিলো, তুমি কী করছো? এমন আচরণ করছ কেন? তুমি তো কাজের কথাই ভাবছোনা’। আমিও আমিরের কথার জবাব দিয়ে বলেছিলাম যে, ‘আমি অক্ষয় কুমারের কথা ভাবছি। এই কথা শুনে আমির খান প্রায় আমার গায়ে হাত তুলেছিলো।’

একইসঙ্গে আমির খান, টুইঙ্কেল খান্নার প্রসঙ্গে বলেছেন যে, “টুইঙ্কল অনেকবার আমার সুবিধা নিয়েছে। তার এবং অক্ষয়ের বিয়ের সময় সে আমাকে তার ব্যক্তিগত ভিডিওগ্রাফার করেছিল। আমাকে তার বিয়েতে এসে পুরো শুটিং করতে এবং ছবি তোলার নির্দেশ দিয়েছিলো।’

Related Articles

Back to top button