বিনোদনসেরা খবর

অভিষেক অসুস্থ জানা সত্বেও জোর করে শুটিংয়ে নিয়ে গিয়েছিল, চ্যানেলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ অভিষেক পত্নীর

গত ২৪ শে মার্চ মৃত্যু হয়েছে বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের। তার মৃত্যু এখনো মেনে নিতে পারছে না কেউই। কাজ করেই সারাটা জীবন কাটিয়ে দিয়েছেন অভিনেতা। আর তার মৃত্যুর পর বারবার উঠে আসছে তারই জীবনের নানা প্রসঙ্গ। সোশ্যাল মিডিয়া কিংবা সংবাদমাধ্যমে স্বামীর মৃত্যুর পর বারবার মুখ খুলেছেন শ্রী সংযুক্তা চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি অভিনেতার শেষ সিনেমা পঞ্চভুজের ট্রেলার এবং মিউজিক লঞ্চে উপস্থিত ছিলেন অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী ও তার মেয়ে।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বিস্ফোরক তথ্য ফাঁস করেছেন তিনি। অভিষেকের মৃত্যুর আগের ভয়াবহ সত্যির কথা জানিয়েছেন তার স্ত্রী। স্টার জলসার নতুন শো ইস্মার্ট জোড়ি-তে প্রথম পর্বে সস্ত্রীক দেখা গিয়েছিল অভিষেককে। শেষবারের মতো সেদিন তিনি ক্যামেরার সামনে ধরা দেন। যা ইতিমধ্যেই বিরাট ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর এবার সেই শো এর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন সংযুক্তা। তিনি অভিযোগ জানিয়েছেন যে চ্যানেল আগে থেকেই জানতো যে অভিষেক অসুস্থ।

আগের দিন খড়কুটোর শুটিং করতে গিয়েও অসুস্থতার জন্য তাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। ডাক্তার জানিয়েছেন যে অভিষেকের ফুড পয়জনিং হয়েছে। অভিষেক তাই ডাক্তারের কথামত বাড়িতে থেকে বিশ্রাম নিতে চেয়েছিলেন। তাই সংযুক্তা চ্যানেলকে ফোন করে অভিষেকের অসুস্থতার কথা জানিয়ে ছিলেন। কিন্তু চ্যানেল থেকে গাড়ি পাঠিয়ে রীতিমত জোর করেই তাকে অনুষ্ঠানে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রথম পর্বের শুটিং ভালো ভাবে সম্পন্ন হলেও দ্বিতীয় এপিসোডে তাদেরকে বর কনে সেজে শুটিং করতে হয়। কিন্তু অভিনেতা শুটিং করতে পারেন না।

এরপর এই অসুস্থতা আরো বেড়ে যাওয়ায় তিনি বাড়িতে ফিরে এলো শেষ রক্ষা হয়নি। নীল পোশাকের তাদের পারফরম্যান্সটা শেষ পারফরম্যান্স নয়। অভিষেকের স্ত্রী আফসোস করছিলেন যে তিনি কেন সময়মতো চ্যানেলের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে পারেননি।। তাহলে হয়তো এই সময়টা আসতো না। যদিও চ্যানেলের পক্ষ থেকে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

Related Articles

Back to top button