বিনোদনসেরা খবর

উড়ন্ত সিঁদুরদান, উড়ন্ত মালা বদলের পর এবার পায়ে হলুদ, ‘আয় তব সহচরীর’ দৃশ্য দেখে হেসে কুপোকাত নেটপাড়া

স্টার জলসার একটি বহুল আলোচিত ধারাবাহিক হল ‘আয় তবে সহচরী’। দর্শকদের বেশ কাছের হয়ে উঠেছে এই ধারাবাহিকটি। তবে সম্প্রতি ধারাবাহিকের একটি দৃশ্যকে কেন্দ্র করে বেশ‌ শোরগোল পড়ে গিয়েছে নেট দুনিয়ায়। প্রসঙ্গত, ধারাবাহিকে মূখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় মুখ কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অভিনেত্রী অরুনিমা হালদার।

এই মুহূর্তে ‘আয় তব সহচরী’ দেখলে দেখতে পাবেন যে, টিপু এবং সুজাতার বিয়ের দৃশ্য দেখানো হচ্ছে। এর আগে সুজাতা আর তার মা বরফির কুষ্ঠি বদলে তার জায়গায় একটি ভুল কুষ্ঠি বানিয়ে ডিভোর্স করিয়েছে টিপু আর বরফির।

এরপর একপ্রকার বাধ্য হয়েই সুজাতার সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে হচ্ছে টিপুকে। ওদিকে বরফিও ছেড়ে দেওয়ার পাত্রী নয়। রীতিমত ছক কষছে বিয়ে ভন্ডুল করার। তবে এইসব চক্রান্তের মাঝে অন্য একটি বিষয়ে গিয়ে চোখ আটকেছে নেটিজেনদের। যা নিয়ে শুরু হয়েছে ট্রোলিং।

এর আগে বাংলা ধারাবাহিকে হামেশাই দেখা যেতো যে, বিয়ের থালি উল্টে সিঁদুর পড়ে গেলো নায়িকার মাথায়, কখোনো বা ভুল করে মালা পরিয়ে দিলো নায়িকার গলায়। তবে এইবার ঘটলো আরো চমকপ্রদ ঘটনা।

না এইবার আর থালা বাটি উল্টে সিঁদুর উড়ে পড়েনি। আসলে সম্প্রতি একটি প্রোমো ভিডিওতে দেখা গিয়েছে যে, গায়ে হলুদের দিন ইচ্ছাকৃতভাবেই বরফিকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় সুজাতা। যার ফলে পায়ে চোট পায় বরফি। বরফির কষ্ট দেখে টিপু এসে নিজের গালের হলুদ লাগিয়ে দেয় বরফির ব্যাথার জায়গায়।

এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই রীতিমত ট্রোল করা শুরু করেছে নেটিজনরা। কেউ কেউ বলেছে, “এই প্রথম গায়ে হলুদ নয় পায়ে হলুদ”। আবার কেউ লিখেছেন, “জীবনে কতকিছু দেখা বাকি আছে। আজ Star Jalsha র জন্য পায়েহলুদ দেখতে পেলাম। অসংখ্য ধন্যবাদ”। অর্থাৎ সবে মিলিয়ে এই মুহূর্তে ট্রেন্ডিংয়ে চলে এসেছে ‘আয় তবে সহচরী’।

Related Articles

Back to top button