WBSEDCL big announcement regarding billing like CESC

Partha

এবার আর ৩ মাসে নয়, প্রতিমাসে আসবে বিল? গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে বড় ঘোষণা করল WBSEDCL

নিউজশর্ট ডেস্কঃ বর্তমানে জনগণের সাধারণ অধিকারের মধ্যে পড়ে বিদ্যুৎ (Electricity)। বিশেষ করে তীব্র গরমের মাঝে রেহাই পেতে ফ্যান কিংবা এসি চালাতে হলে বিদ্যুৎ লাগবেই। স্বাভাবিকভাবেই গরমকালে বিদ্যুতের বিল (Electric Bill) বছরের অন্যান্য সময়ের তুলনায় বেশি আসে। কিন্তু মুশকিল হলো পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিদ্যুৎ বন্টন পর্ষদের (WBSEDCL) ত্রিমাসিক বিল হওয়ার জেরে রীতিমতো বড় ধাক্কা লাগে বিদ্যুতের বিলে। তবে এবার সেই সমস্যার সমাধান হতে চলেছে।

   

এ পর্যন্ত বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তিন মাস অন্তর বিল আসতো WBSEDCL উপভোক্তাদের বাড়িতে। তিন মাসের মোট বিদ্যুৎ খরচের ওপর গড়ে বিল পাঠানো হতো। কিন্তু এই পদ্ধতিতে অতিরিক্ত চার্জ দিতে হচ্ছে বলে বহুবার প্রতিবাদ করেছেন গ্রাহকেরা। CESC এর মত প্রতি মাসে বিদ্যুতের বিল এলে সেটা একদিকে যেমন দেওয়াও সুবিধা তেমনি অতিরিক্ত হারে ইউনিট চার্জ দিতে হয় না। এই দাবিই তুলছিলেন গ্রাহকেরা।

WBSEDCL Tariff Hike

এবার গ্রাহকদের সুবিধার্থে সিইএসসি এর মত প্রতিমাসে বিদ্যুতের বিল পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে । অর্থাৎ মাছের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যতই ইউনিট কারেন্ট ব্যবহার হবে শুধুমাত্র তার ওপর হিসাব করেই বিল পাঠানো হবে। এর ফলে ঘর বিলের মত অতিরিক্ত হারে বা উচ্চ স্লাবের ইউনিট চার্জ আর দিয়ে হবে না। জানা যাচ্ছি এই মাস থেকেই নতুন নিয়ম কার্যকরী হতে চলেছে।

আরও পড়ুনঃ সারাবছর হাই ডিমান্ড! বাড়িতে ফাঁকা জায়গায় এই ব্যবসা করলেই প্রতিমাসে ৫০,০০০ আয়ের গ্যারেন্টি

প্রসঙ্গত, গরমে মাঝেই নতুন ট্যারিফ লাগা করেছে CESC। এই বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি নিয়ে এদিন মন্তব্য করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার নবান্নে তিনি স্পষ্ট জানান সিএসসির এই আসল বৃদ্ধি রাজ্যের কাছে জানা ছিল না তাই তাই বিদ্যুৎ মন্ত্রীকে সিইএসসির সাথে কথা বলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে দাম পরিবর্তিত হবে কি না সে বিষয়ে এখুনি কিছু বলা যাচ্ছে না। আগামী দিনে কোনো অফিসিয়াল ঘোষণা এলে তবেই সবটা স্পষ্ট হবে।