বিনোদনসেরা খবর

‘গরিবের রণবীর সিং’, অনিন্দ্যর পুজোর লুক ভাইরাল হতেই ট্রোলের বন্যা সোশ্যাল মিডিয়ায়

আশ্বিন-কার্তিক এই দুটো মাস যেন বাঙালির জীবনে খুশির জোয়ার ডেকে আনে। কারণ এ যে উৎসবের মরশুম। গোটা বছর ধরে এই দিনগুলির জন্য অপেক্ষা করে থাকে মানুষ। পুজো মানেই মানুষের কাছে একটা আলাদা আবেগ। আর এই কারনেই পুজো নিয়ে বরাবরই আলাদা উত্তেজনা করে মানুষের মধ্যে। শুরু হয়ে যায় বাজার হাট, কেনাকাটা, সাজগোজের প্ল্যান।

এই কটা দিনে প্রতিটা বাঙালিই সেরা দেখতে চায় নিজেকে। শাড়ি, পাঞ্জাবী সবকিছু নিয়ে চলে এক্সপেরিমেন্ট। সাধারণ মানুষ থেকে সেলিব্রেটি, প্রতিটা মানুষই রংবেরঙের পোশাকে রাঙিয়ে নেয় নিজেদের। কে কত ভালোভাবে নিজেকে প্রেজেন্ট করতে পারে সেই নিয়ে চলে প্রতিযোগিতা।

আর সম্প্রতি গামছা প্রিন্ট নিয়ে চলছে এইবছরের প্রতিযোগিতা। ছেলে মেয়ে সকলকেই দেখা যাচ্ছে এই প্রিন্টের শাড়ি জামা পরতে। অবশ্য কে কতটা ভালো ক্যারি করতে পারছে সেটা আলাদা বিষয়। তবে এই প্রিন্টটা আজকাল ভীষণভাবে ট্রেন্ডে এসেছে। আট থেকে আশি সকলকেই দেখা যাচ্ছে এই ধরণের পোশাকে।

 

এই যেমন গতকালই ষষ্ঠী উপলক্ষে গামছা দিয়ে তৈরি শার্ট আর ধুতি পরে সকলের চক্ষু ছানাবড়া করে দিয়েছে ‘গাঁটছড়া’ (Gantchora) সিরিয়ালের রাহুল (Rahul) অভিনেতা অনিন্দ্য চ্যাটার্জী (Anindya Chatterjee)। ড্রেসিং সেন্স যে ইউনিক তা তো বলাইবাহুল্য। ছবি প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই কমেন্ট বক্স উপচে পড়েছে মন্তব্যে। প্রশংসাবার্তা থেকে ট্রোলিং সবই রয়েছে সেখানে।

আর অভিনেতার এইসব ছবি প্রকাশ্যে আসতেই তা ভাইরাল তো বটেই তারসাথে রীতিমত চর্চাতেও। অভিনেতার এই পোশাক সাজ পোশাক দেখে প্রশংসা করেছেন তার তার পর্দার স্ত্রী দ্যুতি অভিনেত্রী শ্রীমা ভট্টাচার্য (Shreema Bhattcharya)। বাদ যায়নি নেটিজনরাও। পাশাপাশি ট্রোলিংও যে হচ্ছেনা তা নয়।

ছবির কমেন্ট বক্স ভরে উঠেছে বহু নেতিবাচক মন্তব্যেও। একজন কমেন্টে লিখেছেন, ‘তাই বলি বাড়ির গামছা নিয়ে পালালো কে’? অপর একজন লিখেছেন ‘দারুন, পুরো গরিবের রণবীর সিং (Ranbir Singh)’! আবার কেউ লিখেছেন ‘রণবীর সিং হতে চাইছো নাকি’? আরো এক জনৈক কটাক্ষ, ‘রকিং দ্য আউটফিট’। যদিও এইসব ট্রোলিংকে বিশেষ পাত্তা দেননি অভিনেতা। তিনি আছেন নিজের মেজাজেই।

Related Articles

Back to top button