অন্যান্যসেরা খবর

দেখতে এক রকম হলেও খুব বড়ো পার্থক্য রয়েছে ATM এবং Debit Card-র, জেনে রাখলে কাজে দেবে আপনার

আজকের ডিজিটাল যুগে, সমস্ত কাজ ঘরে বসেই অনলাইন পদ্ধতির মাধ্যমে এক চুটকিতেই হয়ে যায়, যার ফলে মানুষের কেবল কাজের সুবিধাই হয় তাই নয় মানুষের সময়ও বাঁচে। ব্যাঙ্কগুলিতেও ডিজিটালাইজেশন হয়ে যাওয়ায় সাধারণ মানুষ অনেকটাই স্বস্তি পেয়েছে, কারণ এখন ব্যাঙ্কে শুধুমাত্র টাকা জমা বা তোলার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়াতে হয় না।

এমতাবস্থায় ব্যাঙ্ক থেকে এটিএম এবং ডেবিট কার্ডের মতো কার্ড দিয়ে থাকে গ্রাহকদের। যার মাধ্যমে যে কেউ ব্যাঙ্কের বাইরেও টাকা তুলতে পারে। এখন অনেকেরই ধারণা যে এটিএম এবং ডেবিট দুটি কার্ড আসলে একই। কিন্তু জানিয়ে রাখি দুটি কার্ডের মধ্যেই একটি বড়ো পার্থক্য রয়েছে।

কী পার্থক্য? ভারতের প্রায় সব ব্যাঙ্কগুলিই তাদের গ্রাহকদের অনলাইন লেনদেনের সুবিধার্তে এটিএম এবং ডেবিট কার্ড সরবরাহ করে, যাতে গ্রাহক যে কোনও সময় অর্থ লেনদেন সম্পর্কিত যে কোনো কাজ নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করতে পারেন। এখন জানিয়ে রাখি এটিএম কার্ড এবং ডেবিট কার্ড দেখতে অনেকটা একই রকম হলেও তাদের কাজ কিন্তু সম্পূর্ণ আলাদা।

এটিএম কার্ড শুধুমাত্র অটোমেটিক টেলার মেশিন অর্থাৎ এটিএম-এ ব্যবহার করা যাবে, যার সাহায্যে গ্রাহক তার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলতে পারবেন। কিন্তু কোনও ব্যক্তি যদি এমন জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকেন যেখানে দূর-দূরান্তে কোনও এটিএম মেশিন নেই, তবে সেক্ষেত্রে এটিএম কার্ড ব্যবহার করার আর কোনো বিকল্প নেই। কেবল মাত্র এটিএম মেশিন ব্যবহার করার সময়ই এই কার্ডটি কার্যকর প্রমাণিত হতে পারে।

অপরদিকে হুবহু এটিএম কার্ডের মতোই দেখতে আরো একটি কার্ড থাকে যা গ্রাহকের জন্য তুলনামূলক বেশি সুবিধাজনক। এটি হলো ডেবিট কার্ড, যার সাহায্যে আপনি এটিএম থেকে টাকা তুলতে পারবেন। এছাড়াও, ডেবিট কার্ডটি কেনাকাটা এবং খাবারের বিল পরিশোধের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে, কারণ ডেবিট কার্ডটি সোয়াপ মেশিনের মাধ্যমেও ব্যবহার করা যায়।

যদি কখনও আপনার কাছে ক্যাশ না থাকে বা আশেপাশে এটিএম নেই কিন্তু যদি আপনার ডেবিট কার্ড থাকে তাহলে আর সমস্যায় পড়তে হবে না আপনাকে। খুব সহজেই সোয়্যাপ মেশিনে কার্ড সোয়্যাপ করে বিল পরিশোধ করতে পারবেন আপনি। এতো সোজা আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হবে।

এছাড়াও, ডেবিট কার্ডের নম্বর ব্যাবহার করে ঘরে বসেই খুব সহজেই অনলাইন লেনদেন করতে পারবেন আপনি। তাহলে এখন আপনি নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন যে একই রকম দেখতে এটিএম কার্ড এবং ডেবিট কার্ডের মধ্যে বড় পার্থক্য কী, তাই ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খোলার সময় আপনাকে অবশ্যই আপনার কার্ডটি সাবধানে পরীক্ষা করতে হবে যে সেটি এটিএম নাকি ডেবিট কার্ড।

Related Articles

Back to top button