অন্যান্যসেরা খবর

ব্যবসা করতে চান? আপনাকে সাহায্য করবে ভারত সরকার, অল্প বিনিয়োগে এই ব্যবসা থেকে করুন বিশাল লাভ

করোনা পরবর্তীকালে দেশে যখন চাকরির অবস্থা বেহাল তখন অনেকেই ঝুঁকেছে স্টার্টআপ, ব্যবসা এসবে। এমতাবস্থায় সকলেই চাইবে এমন কোনো ব্যবসা করতে যেখানে কম টাকা লগ্নি করে বেশি টাকা মুনাফা পেতে। আজ এমনই একটি ব্যবসার সম্পর্কে বিশদে জানাবো যা থেকে আপনি ১০ গুণ পর্যন্ত বেশি আয় করতে পারেন।

আসলে এর জন্য আপনাকে মুক্তো চাষ করতে হবে। আপাতদৃষ্টিতে এই চাষ খুব কঠিন মনে হলেও আপনি যদি একবার এই চাষ শিখে যান তাহলে খুব সহজেই লাখ লাখ টাকা উপার্জন করতে পারবেন। শুধু তাই নয় এই ব্যবসার প্রশিক্ষণে যে অর্থ ব্যয় হবে তার ৫০ শতাংশ দেবে সরকার।

প্রসঙ্গত, ব্যবসা শুরুর সাথে সাথেই আপনি এই টাকা পেয়ে যাবেন। খরচের ৫০ শতাংশ টাকা দেবে সরকার আর বাকি ৫০ শতাংশ আপনাকে নিজেকে বিনিয়োগ করতে হবে। অর্থাৎ ব্যবসা শুরুর জন্য ব্যবসার পদ্ধতিতে মন দিলেই হবে, টাকার চিন্তা করার আর দরকার নেই।

কীভাবে চাষ শুরু করবেন : এজন্য প্রথমেই আপনাকে এমন একটি পুকুর খনন করতে হবে যেখানে যথেচ্ছ পরিমাণে ঝিনুক রাখা যায়। প্রাথমিকভাবে পুকুর খনন করতে গিয়ে যদি অর্থাভাবে পড়েন সেক্ষেত্রে সেই খরচের ৫০ শতাংশ দেবে সরকার।

ব্যবসা শুরুর পদ্ধতি : জানিয়ে রাখি দেশে সবচেয়ে বেশি মুক্তা চাষ হয় বিহার এবং দক্ষিণ ভারতের দারভাঙ্গা জেলায়। পাশাপাশি মধ্যপ্রদেশের হোশাঙ্গাবাদ এবং মুম্বাইতে রয়েছে প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। পুকুর খনন হয়ে গেলে সেখানে ঝিনুক গুলিকে একটি জালের মধ্যে বেঁধে পুকুরের জলে ফেলে দেওয়া হয়। এরপর ১০ থেকে ১৫ দিন পর ঝিনুকগুলি পুকুর থেকে বের করে তার উপর একটু একটু করে আঁচড় বসিয়ে মুখটা সামান্য খুলে দেওয়া হয়। আসলে যাতে একটা স্তর তৈরি হতে পারে সেই জন্য এরকম করা হয়ে থাকে। এরপর ঝিনুকগুলি আবার জলে ফেলে দেওয়া হয়।

আপনি কত উপার্জন করবেন : যে কোনো ব্যবসাতেই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো আপনি কত মুনাফা অর্জন করছেন। জানিয়ে রাখি একটি ঝিনুক তৈরি করার জন্য খুব বেশি হলে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা খরচ হয়। এছাড়া একটি ঝিনুকের মধ্যে ১ টি বা ২ টি মুক্তা পাওয়া যায়। একথা হয়তো সকলেই জানেন যে, ভারতীয় বাজারে মুক্তার দাম ২০০-৩০০ এর কম নয়‌।‌ মাত্র ৩৫ টাকা লগ্নি করে যদি ৪০০ টাকা পর্যন্ত উপার্জন করা যায় তাহলে লাভের অঙ্ক যে লাখের উপরে দৌড়াবে তা সহজেই অনুমেয়।

Related Articles

Back to top button