বিনোদনসেরা খবর

‘সত্যিকারের বন্ধু’, শাহরুখকে প্রাণে বাঁচিয়েছিলেন কাজল, এই উপকার কোনোদিন ভোলেননি বাদশা

শাহরুখ-কাজল (Shahrukh Khan- Kajal) মানেই একের পর এক হিট গান, সুপারহিট ছবি আর চুটিয়ে রোম্যান্স। ৯০ দশকের এই জুটি ছিল সুপারহিট। পর্দায় যখন একসাথে দুজনের দেখা মিলত দুজনে যেন আগুন জ্বালিয়ে দিতেন। তাঁদের এই অসাধারণ অভিনয় ও রোম্যান্স দেখে সকলেই ভাবতেন শাহরুখ-কাজল প্রেম করছেন। যদিও বাস্তবে সেটা হয়নি। দুজনেই এখন চুটিয়ে সংসার করছেন।

‘বাজিগর’ দিয়ে শুরু, এরপর একে একে ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’, ‘কভি খুশি কভি গম’, সব সিনেমাতেই ধরা পড়ত তাঁদের অসাধারণ কেমিস্ট্রি। পর্দায় প্রেমিক-প্রেমিকা হলেও বাস্তব জীবনে তারা ভালো বন্ধু। এত বছর পরেও তাদের বন্ধুত্বে চিড় ধরেনি। কিন্তু জানেন এই কাজলের জন্যই আজও বেঁচে আছেন বলিউডের বাদশা! কাজল না থাকলে হয়তো সেদিন বাঁচতে পারতেন না সকলের কিং খান।

কি হয়েছিল সেদিন? তাহলে পুরো বিষয়টা খোলসা করেই বলা যাক। ২০১৫ সালে বহু প্রতীক্ষার পরে একসঙ্গে তাঁদের দেখা যায় রোহিত শেট্টির ছবি ‘দিলওয়ালে’-তে। আইসল্যান্ডের সেই রোম্যান্টিক আবহাওয়া আর অরিজিতের গলায় ‘গেরুয়া’ গানে শাহরুখ-কাজলের অনবদ্য রোম্যান্স দেখে মোহিত হয়েছেন আসমুদ্র হিমাচল। কিন্তু এই শুটিংয়ের সময়ই মারাত্মকভাবে আহত হবার থেকে প্রাণে বাঁচেন বাদশা।

কাজল জানিয়েছিলেন যে খাদে ঘেরা একটা পাহাড়ি গুহায় চলছিল ‘গেরুয়া’-র শ্যুটিং, আর তাদের রোম্যান্স চলছিল মনিটরের পর্দায়। নাচের প্র্যাকটিস চলাকালীন আচমকাই পা ফসকে যায় শাহরুখের! আর একটু হলেই খাদের মধ্যে তলিয়ে যেতেন তিনি। কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে ভগবানের দূতের মতই একটানে শাহরুখকে তুলে আনেন কাজল! সেই উপকার কোনোদিন ভোলেননি বাদশা। তাইতো সবার সামনে বলেছিলেন,”মেরি ইয়ে জিন্দগি আব তুমহারে নাম হো চুকি হ্যায়।” আর এইজন্যই শাহরুখের সবচেয়ে কাছের মানুষ কাজল।

Related Articles

Back to top button