বিনোদনসেরা খবর

‘তারে জামিন পার’-র ছোট্ট ঈশানকে মনে আছে? এখন ২৫-র হ্যান্ডসাম হিরো তিনি, রইল তাঁর ছবি

আমির খানের(Aamir Khan) সর্বকালের সেরা ছবির নাম বললে প্রথমেই উঠে আসবে, ” তারে জামিন পার”(Taare Zamin Paar)। বক্স অফিসে তুমুল সাফল্য থেকে দর্শকদের ভালোবাসা সব কিছুতেই এগিয়ে সিনেমাটি। সিনেমায় মূল চরিত্রে অভিনয় করেছিল আমির খান ও ক্ষুদে শিল্পী ইশান আওয়াস্তি ওরফে দর্শিল। আমিরের সাথে সাথে সিনেমাটিতে মন জয় করেছিল ক্ষুদে অভিনেতা ইশান আওয়াস্তি।

মাত্র ৮ বছর বয়সে অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকের মন জয় করেছিলেন তিনি। আমির খানের সঙ্গে কাজ করেছিলেন এই ছবিতে। বর্তমানে সে আর ছোটটি নেই। সদ্য পা রেখেছে ২৫ বছরে। সকলেই তাঁকে ইশান নামেই চেনে। তাঁর আসল নাম দর্শিল সাফারি।

অভিনয়ের আগে নাচকেই বেশি প্রাধান্য দেন তিনি। খুব ছোট বয়স থেকে নাচের সঙ্গে জড়িত ছিল সে। নাচ নিয়েই সবুজ দেখত ঈশান ওরফে দর্শিল। তাঁদের নাচের ক্লাসে এসেছিলেন অমল গুপ্তা। ‘তারে জামিন পার’ ছবির ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর তিনি। দর্শিলকে দেখেই বেশ ভালো লাগে তাঁর।

তিনিই  অডিশনে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন দর্শিলকে। ছবির শ্যুটিং শুরু হওয়ার আগে থেকেই আমির খানের সঙ্গে ভালো বন্ধুত্ব হয়ে যায় দর্শিলের। একসময় আমির খান জানতে পারেন সিনেমার জন্য দার্শিলের স্কুলে যাওয়া অনিশ্চিত হয়ে যাবে। নষ্ট হতে পারে একটা বছর। আমির খান নিজেই সেই সময় দায়িত্ব নিয়ে  স্কুল কর্তৃপক্ষকে নিশ্চিত করেছিলেন শিশুশিল্পী দর্শিলের পড়াশোনার কোনও সমস্যা হবে না।

তাঁর ভক্তদের প্রশ্ন “তারে জামিন পার” সিনেমার পর তাঁকে সেই ভাবে বড় পর্দায় দেখা যায়নি। তাঁকে নিয়ে ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনা ও আশা ছিল তাঁকে দেখা যাবে বড় পর্দায়। তবে সেই ভাবে ধরা দেননি তিনি। থেকেছেন কিছুটা অন্তরালে। কিন্তু কেন? এই প্রসঙ্গে দর্শিলের মতাদর্শ, তিনি তাড়াহুড়ো করে ক্যারিয়ার শুরু করতে চান না। বিবেচনা করেই নিজেকে গড়তে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে দর্শিল।

পরবর্তী নতুন কাজ নিয়েও ব্যস্ত সে। তবে নতুন কোন সিনেমা বা ওয়েব সিরিজে তাঁকে দেখা যায় সেই বিষয়ে বিস্তারিত কিছুই জানায়নি। পড়াশোনার পাশাপাশি নিজের অভিনয় চালিয়ে গিয়েছেন দর্শিল। নিজেকে বেশ দায়িত্ববান বলেও জানায় সে।  সিনেমা, বিজ্ঞাপন ও বিভিন্ন ব্যান্ডের স্পনসর হিসেবে কাজ করে এই টাকা উপার্জন করেছে সে। প্রতি মাসে দর্শিলের আয় মাসে ২ লক্ষ টাকারও বেশি। সম্প্রতি একটি নতুন গাড়িও কিনেছেন তিনি।

 

 

Related Articles

Back to top button