বিনোদনসেরা খবর

‘গল্প শুরুর দু’দিনের মধ্যেই প্রেম শুরু’, মাধবীলতার নতুন প্রোমো দেখে ক্ষুব্ধ নেটিজনরা

বিনোদনপ্রেমী এমনিই টেলিভিশনের পোকা। তারপর এই কোভিড পিরিয়ডে ঘরবন্দি থেকে যেন একটু বেশিই টিভি ঘেঁষা হয়ে গেছে। আর চ্যানেলগুলিও তাই দর্শকদের মনোরঞ্জনে কোনো খামতি না থাকে তাই নিত্যনতুন সিরিয়াল নিয়ে হাজির হয়। এমনই এক নতুন ধারাবাহিক হলো মাধবীলতা। সম্প্রতি এই ধারাবাহিকটি নিয়েই নেটপাড়ার চর্চা এখন তুঙ্গে।

বাঙালি মানুষ সিরিয়ালপ্রেমী হলেও, বাংলা ধারাবাহিকের প্রতি একটা ক্ষোভ সকলের মুখেই শোনা যায়। নেটিজেনদের বরাবরের অভিযোগ, শুরুতে নতুন ট্র্যাক দেখানো হলেও শেষমেষ সব ধারাবাহিকের গল্পই এক হয়ে যায়। সেই প্রেম-একাধিক বিয়ে তারপর সাংসারিক কূটকাচালি। অর্থাৎ থোড় বড়ি খাড়া আর খাড়া বড়ি থোড় তাকে বলে।

এই নিয়ে মাঝে মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় সোচ্চারও হন সবাই। কিন্তু এর মাঝে মাধবীলতার কী সম্পর্ক? আসলে হয়েছে কি, এই সিরিয়াল শুরুর সময় আকর্ষণীয় প্লট দেখানো হলেও এখন এতেও নাকি শুরু হয়ে গেছে প্রেমের ট্র্যাক। নায়িকা চরিত্রে শ্রাবণী ভূঁইয়া এবং নায়কের চরিত্রে দেখা যাচ্ছে সুস্মিত মুখার্জিকে।

সিরিয়ালের প্রথম প্রোমোতে দেখানো হয়েছিলো, মাধবীলতা জঙ্গলমহলের মেয়ে। জঙ্গলমহলের এই মেয়েটির প্রাণকেন্দ্রই হল গাছ। নিজের জীবন থাকতে কাউকে গাছ কাটতে দেবেনা সে। এইজন্য মারপিট করতেও পিছপা নয় সে। এদিকে সবুজ মুগ্ধ হয়েছে মাধবীলতার রূপে। ধুন্ধুমার মারপিটের মাঝেই গাছের আড়াল থেকে মাধবীলতার ছবি তুলতে ব্যস্ত সে।

এবার এই গেলো প্রোমোর গল্প, তবে ধারাবাহিক শুরু হতে না হতেই ক্ষুব্ধ হয়ে উঠলো নেটপাড়া। যদিও এর পেছনে একটা নয় অনেকগুলো কারণ রয়েছে। মাধবীলতা সিরিয়াল আনার জন্য বন্ধ করতে হয়েছে ‘মন ফাগুন’কে। যা কি না অনেকেরই পছন্দের ছিলো। এছাড়াও একটা মেয়েকে না জানিয়ে লুকিয়ে তার ছবি তোলা আইনত অপরাধ। সিরিয়ালটি সেই অপরাধকেই জাস্টিফাই করছে বলে অভিযোগ দর্শকদের।

পাশাপাশি, গল্প যেহেতু জঙ্গলমহলের তাই সিরিয়ালের ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকও সেরকমই মানানসই দেওয়া উচিত ছিলো বলে মত মানুষের। কিন্তু সেই জায়গায় বাজছে হিন্দি ছবির গান। এদিকে নায়কের চরিত্রে সুস্মিতের অভিনয়ও নাকি তথৈবচ। এই সব মিলিয়ে দর্শকরা খাপ্পা তো ছিলোই এরমধ্যে সেই আগুনে ঘি ঢালার কাজ করেছে ‘মাধবীলতা’র নতুন প্রোমো।

সম্প্রতি চ্যানেল কর্তৃপক্ষ একটি নতুন প্রোমো রিলিজ করেছে যেখানে দেখা যাচ্ছে গোলাপ হাতে হিন্দি ছবির রোমান্টিক সিনের মতো হাঁটু গেড়ে মাধবীলতাকে প্রেম নিবেদন করছে সবুজ। ব্যস আর যায় কোথায়, এই প্রোমো রিলিজ হওয়ার পর থেকেই রে রে করে তেড়ে এসেছে নেটবাসীরা। সকলেরই একই বক্তব্য, সেই তো শুরু হলো একই গল্প। একজন তো লিখেছে, ‘দুদিনেই প্রেম প্রস্তাব, এরপর বিয়ে। তারপর জঙ্গল বাঁচানোর গল্প উধাও হয়ে বড়োলোক বাড়ির যোগ্য বউ হওয়ার প্রতিযোগিতা শুরু হবে’। এক গল্পই যদি দেখাতে হয় তাহলে পুরোনো গুলো বন্ধ করার কী প্রয়োজন’? প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

Related Articles

Back to top button