বিনোদনসেরা খবর

‘কাজ না করলে হাঁড়ি চড়বে না এমন নয়,’ ছেলেকে নিয়েই এখন ব্যস্ত থাকতে চান অভিনেত্রী মধুবনী

একসময় দাপটের সঙ্গে কাজ করলেও এখন ইন্ডাস্ট্রি থেকে শত হস্ত দূরে তিনি। ছেলে, স্বামী সংসার নিয়ে সুখী গৃহকোণ তার। অনুরাগীরা তার প্রত্যাবর্তনের আশায় দিন গুনলেও স্বামী সন্তান নিয়ে বেশ আছেন অভিনেত্রী। আসলে আমরা আজ মধুবনী ঘোষ গোস্বামীর কথা বলছি।

স্টার জলসায় সম্প্রচারিত ‘ভালোবাসা ডট কম’ সিরিয়ালের হাত ধরে ছোট পর্দা পা রাখেন তিনি। ঐ একই ধারাবাহিকে কাজ করেছিলেন স্বামী রাজা গোস্বামী। ওম-তোড়ার জুটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছিলো সেই সময়। শুটিংয়ের ফাঁকে অনস্ক্রিন রোমান্স যে কখন অফস্ক্রিনেও পৌঁছে গেছে তা খেয়ালই করেনি কেউ।

তবে রিল লাইফ এবং রিয়েল লাইফ দুই জায়গাতেই যে তারা হিট জোড়ি তা তাদের ফ্যান ফলোয়িং দেখলেই স্পষ্ট। বেশ কিছুদিন প্রেম পর্ব চলার পর বিয়েও সেরে ফেলেন দুইজন। এরপরই বছর দেড়েক আগেই কোল আলো করে একটি পুত্র সন্তানও এসেছে তাদের। স্বামী সন্তান নিয়ে এখন বেজায় ব্যস্ত এই অভিনেত্রী।

তবে আজকের দিনে যেখানে সবাই কেরিয়ার তৈরি করতে মগ্ন মধুবনির জীবনে উলটপূরাণ? স্রোতের বিপরীতে হাঁটার কারন কী? সম্প্রতি এইসমস্ত প্রশ্ন নিয়েই মিডিয়া পৌঁছে যায় তার কাছে। তবে মধুবনী জানিয়েছেন, “আমি খুব ভাল আছি। আমার কোনও দিনই খুব উচ্চাকাঙ্ক্ষা ছিল না। আর তা-ছাড়া সন্তানের বেড়ে ওঠার কোনও মুহূর্ত আমি মিস করতে চাই না। আমার অবসাদ আসে না।”

যেখানে বিয়ে সন্তান এই সবকিছু থেকে গা বাঁচিয়ে চলছে আজকের প্রজন্ম সেখানে মধুবনীর এই স্রোতের বিপরীতে চলা দেখে মুগ্ধ হয়েছে অনেকেই। লাইট ক্যামেরা অ্যাকশন এই শব্দগুলো ছেড়ে কীভাবে রয়েছেন তিনি? এই প্রশ্নের উত্তরে অভিনেত্রী জানান, “কাজ করতে যাওয়ার একটা বড় কারণ হল অর্থনৈতিক অবস্থা যেন ঠিক থাকে। আমাকে টাকা-পয়সার দিকটা চিন্তা করতে হয় না। এমনটা নয় আমি কাজ না করলে হাঁড়ি চড়বে না। তাই রাজা, কেশবকে নিয়ে আপাতত চুটিয়ে সংসার করতে চাই।”

দিনকয়েক আগেই স্টার জলসার রিয়েলিটি শো ‘ইস্মার্ট জোড়ি’র মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন মধুবনী এবং রাজা। সঙ্গে ছিলো পুত্র রাজা। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী ইতিমধ্যেই একাধিক ধারাবাহিকের অফার গিয়েছে তার কাছে। কিন্তু বারংবার ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি। আপাতত কেশব আর রাজার প্রতিই মনোনিবেশ করতে চান তিনি। ছেলের বড়ো হয়ে ওঠার একটা মুহুর্তও মিস করতে রাজি নন মা মধুবনী ঘোষ গোস্বামী।

Related Articles

Back to top button