বিনোদনসেরা খবর

“আমি সনাতন ধর্মে বিশ্বাসী”, নারীবাদীদের মুখে সপাটে চড় অভিনেত্রী প্রণিতার

ভারতের দক্ষিণ অংশের বিখ্যাত অভিনেত্রী প্রণিতা সুভাষ রয়েছেন সংবাদ শিরোনামে। তবে কোনো সিনেমার জন্য নয়, স্বামীর পায়ের সামনে বসে ছবি তোলায় তাকে নিয়ে নতুন বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে গণমাধ্যমে। ভারতীয় সংস্কৃতির প্রধান বাহক এবং সদাসত্য, সনাতন হিন্দু ধর্মের রীতি পালন করতে গিয়ে স্বামী নীতিন রাজুর পায়ের সামনে বসে ব্যাপক সমালোচনায় পড়েছেন তিনি।

গত ২৮ জুলাই ‘ভীমানা অমাবস্যা’ নামে এক রীতি পালন করার সময়ের একটি ছবি শেয়ার করেছেন তিনি। আর সেই ছবি থেকেই তিনি নাকি পিতৃতন্ত্রকে উসকানি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ। সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে যে, তার স্বামী চেয়ারে বসে আর একটি থালার ওপর নিজের পা রেখেছেন। প্রণিতা বসে রয়েছেন তার স্বামীর পায়ের সামনে, আর সেখানেই আরতির থালা সহ রয়েছে পুজোর অন্যান্য সামগ্রী।

সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বী মহিলারাই এই প্রথার মাধ্যমে পরিবারের স্বামী এবং পুরুষদের দীর্ঘায়ু কামনায় এই প্রথা পালন করে থাকে। তবে ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে আসতেই ব্যাপক সমালোচনা চলছে তাকে নিয়ে। তাকে বিক্ষোভের তীরে বিধে একজন লিখেই ফেলেন যে, ‘সব পুরুষরা প্রশংসা করছেন ওঁর। কিন্তু কোনো পুরুষ কি মহিলার পা ধুয়ে দেন? সেটাই হবে সাম্য’। আবার অনেকে সাজেশন দিয়েছেন একত্রে বসার, কারন দুজনেই সমান।

কয়েকজন তো প্রণিতার বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ করেন যে, মহিলারা যখন অধিকারের লড়াইয়ে সোচ্চার হচ্ছে তখন প্রণিতার মতো কিছু জনের এই ধরণের কাজ প্রগতিশীল মহিলাদের আরো পেছনে টেনে আনছে। এছাড়া কিছুজনের তো আবার হিন্দু ধর্মের সাথে চিরাচরিত শত্রুতা, তারা সরাসরি বলেই দিয়েছেন এটি আসলে একটি কুপ্রথা।

তবে বিতর্ক এতবেশি বেড়ে যায় যে, শেষমেষ মুখ খোলেন প্রণিতা নিজেই। তিনি সপাট উত্তর দেন যে, “যেহেতু আমি একজন অভিনেত্রী এবং গ্ল্যামার জগতের বাসিন্দা মানেই এই নয় যে ছোট থেকে যে রীতি আমি দেখে আসছি এবং বিশ্বাস করি সেই রীতি পালন করতে পারব না। আমার আত্মীয়রা, প্রতিবেশীরা এবং বন্ধুরাও এটা পালন করেছে। গত বছর বিয়ের পরপরও এই রীতি পালন করেছিলাম, কিন্তু ছবি শেয়ার করিনি।”

প্রণিতা যে বরাবরই সনাতন ধর্মের রীতিনীতি পালন করে থাকেন এটা আর নতুন কথা নয়। এর আগেও তিনি হিন্দু ধর্মকে কালিমালিপ্ত করার অপচেষ্টার বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছেন। ভারতীয় মহান ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতিকে সম্মান করে , ভালোবেসে আপন করে নিয়েছেন। তার মতে সনাতন ধর্ম একটা খুব সুন্দর বিষয় যা সবাইকে আপন করে নেয় আর এই ধর্মেই তিনি বিশ্বাস করেন। এবং তিনি যে নিজের শিকড়কে ভুলতে চাননা সেই সুরও স্পষ্ট তার কথা থেকে।

Related Articles

Back to top button