বিনোদনসেরা খবর

‘বিদেশের মাটিতেও সুপারহিট দিদি নাম্বার ওয়ান’, দুবাইতে জমিয়ে কাপড়ের ব্যবসা করছে ‘রচনাস ক্রিয়েশন’

ওড়িয়া ইন্ডাস্ট্রির হাত ধরে অভিনয় জগতে প্রবেশ করলেও জনপ্রিয়তা পেয়েছেন মূলত টলিউডেই (Tollywood)। কেরিয়ারের শুরুর দিকটা পুরোপুরি অভিনয়ে মনোনিবেশ করলেও বর্তমানে তাকে দেখা যায় জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় শো ‘দিদি নং ওয়ান’র সঞ্চালিকা হিসেবে। হ্যাঁ, আমরা বলছি টলিপাড়ার সুন্দরী নায়িকা রচনা ব্যানার্জির কথা।

এই কথা তো সকলেই জানেন যে, এই নায়িকা নাম্বার ওয়ান, আর এখন তিনি দিদি নাম্বার ওয়ান (Didi Number One)। তবে যেটা খুব কম মানুষই জানেন তা হল, অভিনেত্রী এখন শাড়ির ব্যবসাতেও নেমেছেন। নিজের ব্র্যান্ডের নাম দিয়েছেন, ‘রচনাস ক্রিয়েশন’ (Rachana’s Creation)। আর এবার তাতে যোগ হল আরো একটি নতুন পালক।

সূত্রের খবর, নিজের লক্ষাধিক অনুরাগীকে কাজে লাগিয়ে বিদেশে পাড়ি দিয়েছে ‘রচনাস ক্রিয়েশন’। এর আগে মূলত ফেসবুক লাইভে এসেই শাড়ি বিক্রি করতেন তিনি। যদিও প্রথমে বেশ কিছু কটাক্ষ সহ্য করতে হয়েছে তাকে। তবে অবশেষে তার পরিশ্রমের ফল পান তিনি। এই কাজে অভিনেত্রীকে সাহায্য করেছে তার একনিষ্ঠ ভক্তরা।

আসলে রচনা বরাবরই নেতিবাচক সমালোচনাকে উপেক্ষা করে তার নিজের পথেই এগিয়ে গিয়েছেন বলেই আজ তিনি সর্বক্ষেত্রে এতটা সফল। আর এই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে, এখন তার ব্যবসা শুধুমাত্র বাংলাতেই সীমাবদ্ধ নেই। দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে পৌঁছে গেছে বিদেশের মাটিতেও। সম্প্রতি রচনা তার শাড়ির ভান্ডার নিয়ে পৌঁছে যান দুবাইতে। সেখানেই জাঁকিয়ে খুলেছেন ব্যবসা।

রচনা ব্যানার্জীর অনুরাগী গোটা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন। দুবাইতে পৌঁছে তিনি তার অনুরাগীদের সঙ্গে বেশ কিছু ছবি তুলে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করেন। দুবাইতেও তার বেশ ভালো সংখ্যক ক্রেতা রয়েছেন। রচনার এই সাফল্যের জন্য তাকে সাধুবাদ দিচ্ছেন ভক্তরা। সেই সঙ্গে তার ব্যবসার আরও উন্নতি কামনা করছেন সকলে।

একথা বলাই বাহুল্য যে, বেশ ভালোরকম সাড়া পেয়েছেন অভিনেত্রী। দুবাইয়ে গিয়ে সেখানকার অনুরাগীদের সঙ্গে ছবি তুলে তা পোষ্টও করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এর আগে ব্যবসা সম্পর্কে কটাক্ষের উত্তরে একবার রচনা বলেছিলেন, ‘চিরটাকাল আমি টেলিভিশন করতে পারবোনা। তখন পেট চালানোর জন্য আমায় বিকল্প খুঁজতে হবে। সেই ব্যবস্থাই এখন থেকে করে রাখছি। সত্যি বলতে রচনার এই দূরদর্শীতাকে সাধুবাদ না জানিয়ে উপায় নেই।

Related Articles

Back to top button