বিনোদনসেরা খবর

প্রকৃত বন্ধু বলে কথা! ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ করতে টাকা নেননি রণবীর-আলিয়া! নিজের মুখেই জানালেন পরিচালক অয়ন

কেউ বলছে হিট তো কেউ বলছে ছবির খরচও ওঠেনি। ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ বিতর্ক তো আজকের নয়। বাস্তব চিত্রটা একটু গোলমেলে। আসল কালেকশন এবং লাভের ক্ষেত্রে জিনিসগুলি এখনও অস্পষ্ট। তবে সম্প্রতি এই ছবি প্রসঙ্গে যে তথ্য সামনে এসেছে তাতে একটু অবাকই হয়েছে সবাই। দিনকয়েক আগেই পরিচালক জানালেন নতুন খবর।

অয়ন মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই সাই-ফাই ফ্যান্টাসি ড্রামা মুক্তি পেয়েছে গত ৯ই সেপ্টেম্বর। সেইসময় খবর পাওয়া গেছিলো যে ছবিটি তৈরি করতে মোট খরচ হয়েছে প্রায় ৪১০ কোটি টাকা। তবে প্রোমোশন ইত্যাদির খরচ নিয়ে ৬৫০ কোটি পার করে যাওয়া অসম্ভব কিছু নয়। তাই এটা বোঝা খুবই সহজ যে, এত বড়ো স্কেলে তৈরি একটি ছবির সাফল্য নির্ভর করে বক্স অফিস কালেকশন নয়, প্রাপ্ত লভ্যাংশের উপর।

ছবির কাহিনী নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া থাকলেও ছবির ভিএফএক্সে-এর পেছনে খরচ করতে যে কোনো খামতিই রাখেননি অয়ন মুখার্জি, তা বলাই বাহুল্য। আর এইসব দেখে অনেকেরই মনে হয়েছিলো যে এই বাজেটে সমস্ত কলাকুশলীদের পারিশ্রমিক দিয়ে এই মানের ভিএফএক্স এর ব্যবহার করা সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে ছবির দুই লিড কাস্ট রণবীর কাপুর এবং আলিয়া ভাটকে পারিশ্রমিক কিছুটা নামিয়ে আনতে হয়েছে কি না, এই নিয়ে অনেকেরই মনে প্রশ্ন ছিল এই বিষয়। আর সম্প্রতি এই নিয়েই মুখ খুললেন পরিচালক অয়ন মুখার্জি।

এই প্রসঙ্গে বাণিজ্য বিশ্লেষক কোমল নেহতার সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কিছুটা অস্পষ্ট ব্যাখ্যা দিয়েছেন অয়ন। একটি সাক্ষাৎকারে রণবীরকে করা প্রশ্ন নিজেই লুফে নিয়ে অয়ন বলেন, “অনেক ব্যক্তিগত ত্যাগের কারণে ছবিটি তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। এটা সত্যিই যে এক জন তারকা বা অভিনেতা হিসাবে রণবীর যে অঙ্কের পারিশ্রমিক নেন, ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ তৈরির জন্য সে তুলনায় কিছুই নেননি। না হলে ছবিটা হয়তো করাই যেত না।”

এই একই সুর শোনা গেছে আলিয়ার ক্ষেত্রেও। অয়নের কথায়, ‘২০১৪ সাল, ইন্ডাস্ট্রিতে নবীন আলিয়া। সবে মাত্র কয়েকটা ছবি মুক্তি পেয়েছিল ওর। আজ যেমন ও তারকা সেই সময়ের বিষয়টা আলাদা ছিল। এই ছবিতে আলিয়ার জন্য যে পরিমাণ পরিশ্রমিক নির্ধারণ করা হয়েছিল, তা খুব একটা বেশি ছিল না।’ যদিও রণবীরের গলায় শোনা গেল স্পস্ট সুর।

রণবীর জানান তিনি অবশ্যই লাভবান হয়েছেন। তার কথায়, “আমিও এ ছবির প্রযোজনার অংশীদার। তিনটে ছবি মিলিয়ে টাকা উঠে আসবে এই বিশ্বাস আমার ছিল শুধু। তবে এ ছবির অভিনেতা হিসাবে আমি যে মূল্য পেলাম, তা টাকার অঙ্কে মাপা যাবে না।” এখন এর অভ্যন্তরীন গল্প ঠিক কী তা এনারাই জানেন।

Related Articles

Back to top button