রাখি পূর্ণিমা,জ্যোতিষি,Rakhi Purnima,Astrologer

Moumita

ভাইয়ের সময় খারাপ যাচ্ছে? ভাইয়ের মঙ্গল কামনায় এই রাখি পূর্ণিমায় মেনে দেখুন কিছু টোটকা, উপকার পাবেন

সামনেই আসছে রাখি পূণিমা। ১১ আগস্ট, ২০২২ বৃহস্পতিবার এই দিনটিকে নিয়ে উত্তেজনার শেষ নেই ভাইবোনদের মধ্যে। ভাই-বোনের পবিত্র সম্পর্ককে উৎসর্গ করা এই দিন। রাখি বন্ধন কোনও অনুষ্ঠান নয়, বহু যুগ ধরে ভাইয়ের দীর্ঘায়ু এবং মঙ্গল কামনা করে তাদের হাতে রাখি পরিয়ে দেয় বোনেরা।

আর পরিবর্তে বোনের মান সম্মান এবং সুরক্ষার দায়িত্ব নেয় বোনেরা। এমতাবস্থায় আপনার ভাইয়ের জীবনে যদি কোনো অশনি সংকেত রয়েছে তাহলে এই টোটকা গুলি চেষ্টা করে দেখতে পারেন। অভিজ্ঞ জ্যোতিষিদের দেওয়া এই টোটকায় কাজ হবে অবিলম্বে। তাই রাখি বাঁধার আগে অবশ্যই এই কাজগুলি করে দেখুন।

১) পরিবার এবং ভাইয়ের মঙ্গল কামনা করে এই বিশেষ দিনটিতে বাড়িতে লক্ষ্মী দেবী শ্রীবিষ্ণুর পুজো করুন। নৈবেদ্য হিসেবে দেবীর পায়ের কাছে একটি গোটা নিখুঁত নারকেল অর্পণ করুন। এরপর একটি প্রদীপে ঘি দিয়ে তার মধ্যে কয়েক দানা আতপ চাল দিয়ে প্রদীপটি জ্বালিয়ে, ধূপ জ্বালিয়ে পূজো শেষ করুন। এরপর নারকেলটি কোনো নদীতে ভাসিয়ে দিন।

২) এই বিশেষ দিনটিতে সকালে ঘুম থেকে উঠে স্নান সেরে একমুঠো কালো তিল নিয়ে নদীপাড়ে যান। পিতৃপুরুষের উদ্দেশ্যে সেই তিল জলে ভাসিয়ে দিন। তাঁদের কৃপা থাকবে আপনার পরিবারের উপর।

৩) নিজের ভাইয়ের হাতে রাখি বাঁধার আগে অবশ্যই ভগবান শ্রীকৃষ্ণের হাতে একটি রাখি বাঁধুন।

৪) ভাইয়ের হাতে রাখি বাঁধার আগে সেই রাখিটিকে আগে মা লক্ষ্মী এবং শ্রীবিষ্ণুর চরণে নিবেদন করুন। তারপর সেই রাখি ভাইয়ের হাতে পরান।

৫) মনে রাখবেন রাখির সুতো যেন কোনোভাবেই কালো রঙের না হয়। লাল, হলুদ এবং সাদা রঙের সুতোর রাখিকে শুভ বলে মানা হয়।

৬) বসার আগে ভাইকে উত্তর বা পূর্ব দিকে মুখ করে বসাবেন। তারপরই হাতে রাখি বাঁধুন।

৭) রাখি পরানোর আগে ভালোকরে দেখে নেবেন রাখিতে কোথাও যেন ছেঁড়া, ভাঙা কিছু না থাকে। তাহলে তা অশুভ মানা হয়।

৮) যদি সম্ভব হয় তাহলে সামর্থ্য অনুযায়ী ভাইয়ের মঙ্গল কামনায় কিছু গরিব দুঃখী মানুষকে অন্ধ বস্ত্র দান করুন।