বিনোদনসেরা খবর

‘অনেক বছর হয়ে গিয়েছে, টপার হয়েও এখন শিহরণ জাগে না’, ধূলোকণার গল্প নিয়ে মন্তব্য লেখিকা লীনা গাঙ্গুলীর

যার হাত ধরে বাংলা সিরিয়ালের এত জনপ্রিয়তা তার নাম এখন সকলের মুখে মুখে। এখানে কথা হচ্ছে বাংলার বিভিন্ন মেগাসিরিয়ালের লেখিকা লীনা গঙ্গোপাধ্যায়কে(Leena Ganguly) নিয়ে। এই মুহূর্তে তার লেখা সিরিয়াল স্টার জলসার(Star Jalsa) ‘ধূলোকণা'(Dhulokona) বেঙ্গল টপার হয়েছে। ফুলঝুরি ও লালনের বিয়েতে চূড়ান্ত নাটকীয় পর্ব দর্শকদের মন জিতে নিতে সক্ষম হয়েছে। আর তাই টিআরপি(TRP) তালিকাতে প্রথম জায়গা দখল করেছে ধূলোকণা।

এই সিরিয়ালের দৌড়ে পিছিয়ে পড়েছে স্টার জলসার গাঁটছড়া ও জি বাংলার মিঠাই। লালন ও ফুলঝুরির বিয়ে দেখার জন্য বসে রয়েছেন দর্শকেরা। এত পর্ব হয়ে যাবার পরও এখনো এই জুটির বিয়ে হয়নি। বারবার বিয়ের প্রস্তুতি চললেও কোন না কোন কারনে সে বিয়ে ভেঙে গিয়েছে। এইবারও সেটাই হয়েছে। আর তাই ক্ষেপে গিয়েছে দর্শকদের একাংশ। ফুলঝুরির উপর বেশি রাগ প্রকাশ করেছেন দর্শকেরা।

তাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষ করা হয়েছে। ফুলঝুরির সবকিছুকে ন্যাকামো বলে দর্শকেরা ‘ন্যাকশ্রী’ তকমা দিয়েছেন। সিরিয়ালের নায়িকা হয়েও বারবার সে হেরে যাচ্ছে ভিলেন চড়ুই এর কাছে। এমনকি নিজের প্রিয় মানুষকে হাতছাড়া করতে একবারও ভাবেনি সে। তবে ফুলঝুরির সাপোর্ট করেছেন একদল অনুরাগীরা। তাদের মতে, নায়ক নায়িকাদের দোষ দিয়ে কোন লাভ নেই। তারা তো চিত্রনাট্য অনুযায়ী অভিনয় করে থাকেন।

তাই দোষ যদি দেওয়ার হয়, তাহলে যিনি সেরিয়াল লিখছেন সেই লেখিকা লীনা গঙ্গোপাধ্যায়কে বলা উচিত। তবে এবার এই প্রসঙ্গ নিয়ে মুখ খুলেছেন লেখিকা। বেঙ্গল টপার হওয়া নিয়ে লীনা গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন যে অনেকগুলো বছর হয়ে গেল আমার সিরিয়াল টপার। এখন আর নতুন করে শিহরণ হয় না। কিন্তু ভাল লাগে। এটা তো একটা লড়াই বটেই। আবার তার লেখার সিরিয়ালের একটা বড় অংশ জুড়েই থাকে পরকীয়া। এ প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন আসলে মানুষ ড্রামা পছন্দ করে। সবই তো দর্শকের জন্য।

Related Articles

Back to top button