Aparajita Adhya reacted seeing fake news spreading in her name after Jol Thoi Thoi Bhalobasa ended

Partha

আমার মুখে মিথ্যে বসানো হয়েছে, আচমকাই ‘জল থই থই ভালোবাসা’ শেষের পর ক্ষোভ প্রকাশ অপরাজিতার

নিউজশর্ট ডেস্কঃ বাঙালি দর্শকদের খুবই প্রিয় একজন অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য (Aparajita Adhya)। সিনেমার পাশাপাশি সুপারহিট সিরিয়ালে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রীকে। কিন্তু ‘লক্ষী কাকিমা সুপারস্টার’ থেকে ‘জল থই থই ভালোবাসা’ (Jol Thoi Thoi Bhalobasa) দুই মেগাই আচমকা বন্ধ হয়ে গেল। এমনটাও নয় না টিআরপি খারাপ, বরং স্লট লিডার ছিল জল থই থই ভালোবাসা। তাও মাত্র ১ সপ্তাহের নোটিশেই শেষ হল ধারাবাহিকটি।

   

ভালো টিআরপি তাহাকে সত্ত্বেও কেন এমনটা হল? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজেছেন অভিনেত্রী নিজেও। তবে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে তাঁর মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা নিয়ে সরব হয়েছেন তিনি। নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে স্ক্রিনশট শেয়ার করেছেন। যেখানে লেখা রয়েছে, ‘আজ অনেক কষ্টে সেট ছেড়ে চলে যাচ্ছি। ভালো টিআরপি হওয়া সত্ত্বেও জলস্যা আমাদের সাথে অন্যায় করল। এক সপ্তাহের নোটিশে অনেক কষ্টে জল থৈ থৈ ভালোবাসা শুটিং শেষ করলাম’।

পোস্টটি শেয়ার করে অপরাজিতা লেখেন, ‘জল থই থই ভালোবাসার সম্পর্কে যা বক্তব্য ছিল তা আগেই বলেছি। তবে এই তথাকথিত খবরের সমাজ মাধ্যম চ্যানেলটি তাদের পোস্টে আমার কথা ও আচরণ বিষয়ে যা যা লিখেছেন তার পুরোটাই মিথ্যে’।

Aparajita Adhya Jol Thoi Thoi Bhalobasa

আরও পড়ুনঃ কেমন দেখতে হয়েছে ঋতুপর্ণার মেয়েকে? ‘অযোগ্য’র স্ক্রিনিংয়ে দেখা মিলল মিশুক-ঋষণার

এখানেই শেষ নয় অভিনেত্রী আরও জানান, ‘প্রথমত চ্যানেল আমার সাথে অন্যায় করেছে, এতবড় মিথ্যে আমার মুখে বসানো অপরাধ। আর আমি কষ্টে সেট ছেড়ে চলে যাচ্ছে এই ধরণের শিশুসুলভ আচরণ আমার মত পেশাদার অভিনেত্রীর বিষয়ে আরও বড় অন্যায়’। শেষে এমন হলুদ সাংবাদিকতার বন্ধ হওয়া উচিত বলে সংবাদ মাধ্যমটির বিরুদ্ধে রিপোর্ট করার জন্যও বলেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই শেষ হয়ে গিয়েছে জল থই থই ভালোবাসা। তার বদলে এসেছে সোনামনি সাহা ও হানি বাফনার নতুন ধারাবাহিক ‘শুভ বিবাহ’। এবার নতুন মেগা কতটা দর্শদের জনপ্রিয়তা আদায় করতে পারে ও টিআরপি তালিকায় কেমন ফল করে সেটাই দেখার অপেক্ষা।