Indian Railway announces First Aid Kit and medicine on running train with TTE Facility

Partha

চলন্ত ট্রেনে অসুস্থ? চিন্তা নেই মিলবে ওষুধ থেকে ডাক্তারের পরামর্শ, বড় ঘোষণা ভারতীয় রেলের

নিউজশর্ট ডেস্কঃ ভারতবর্ষের বেশিরভাগ মানুষের জীবনে ট্রেনের গুরুত্ব অপরিসীম। ভারতীয় রেলে (Indian Railways) প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ সফর করেন। কেউ কর্মসূত্রে তো কেউ ভ্রমণ  ট্রেনকেই বেছে নেন। তাই যাত্রী সুরক্ষা তথা সুবিধা নিয়ে সর্বদাই সজাগ রেল কর্তৃপক্ষ। প্রতিনিয়ত একাধিক সুবিধা চালু করা হচ্ছে। তবে এবার যে সুবিধা ঘোষণা করা হল তা শুনে ধন্য ধন্য করছেন অনেকেই।

চলন্ত ট্রেনেই মিলবে ওষুধের পরিষেবা

   

লোকাল ট্রেনের জার্নি কিছু সময় বা কয়েক ঘন্টার মধ্যে সম্পূর্ণ হলেও এক্সপ্রেস ট্রেনের ক্ষেত্রে যাত্রার সময়টা। অনেকটাই এই সময়ের মধ্যে কেউ যদি হটাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তাহলে বেশ মুশকিলের মধ্যে পড়তে হয়। যদিও এমন পরিস্থিতিতে উক্ত ট্রেনের টিকিট পরীক্ষককে (TTE) জানালে পরবর্তী স্টেশনে নামিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হত। কিন্তু তাতে অনেকটা দেরি হয় যায়, তাই এবার থেকে চলন্ত ট্রেনেই চিকিৎসা পরিষেবা (First Aid treatment in Running Train) দেওয়ার সিদ্ধান্ত নীল রেল কর্তৃপক্ষ।

যেমনটা জানা যাচ্ছে পূর্ব রেলের ৫টি বিভাগে এই সুবিধা চালু করা হচ্ছে। কেন যাত্রী যদি আচমকাই অসুস্থ বোধ করেন তাহলে TTE এর সাথে জড়াজগ করলেই জ্বর, বমি, ডায়রিয়া, এলার্জি ও গ্যাসের ওষুধ পাওয়া যাবে। আপাতত এই ৫ ধরণের ওষুধ থাকবে First Aid কিটে। রেলের এই ঘোষণাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন যাত্রীদের একটা বড় অংশ। এতে যাত্রাপথে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রাথমিক চিকিৎসা অন্তত পাওয়া যাবে।

First Aid Facility in Running trains initiative by Eastern Railway

প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য ফি

আপনাদের জানিয়ে রাখি সপ্তাহে ৭ দিন ২৪ ঘন্টায় এই পরিষেবা পাওয়া যাবে। কেউ অসুস্থ বোধ করলে TTE এর আস্থে যোগাযোগ করলে মাত্র ৫০ টাকার বিনিময়েই প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য এই ওষুধগুলি পেয়ে যাবেন। এমনকি প্রয়োজনে TTE মোবাইলে চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করে তারপরেই অসুস্থ যাত্রীকে ওষুধ দেবেন।

আরও পড়ুনঃ এবার আর ৩ মাসে নয়, প্রতিমাসে আসবে বিল? গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে বড় ঘোষণা করল WBSEDCL

তবে এখানেই শেষ নয়, ওষুধ দেওয়া পাশাপাশি TTE যাত্রীর নাম, লিঙ্গ, বয়স, PNR নাম্বার, বার্থ নাম্বার সমস্তটা নোট করবেন। এরপর প্রয়োজনে গন্তব্য স্টেশনে বা পরবর্তী স্টেশনে চিকিৎসকের কাছে নাম লিখিয়ে দেবেন।

প্রসঙ্গত, এর আগেও যাত্রীদের প্রাথমিক চিকিৎসার সুবিধা দেওয়া হত। তবে সেক্ষেত্রে স্টেশন সুপারিন্টেন্ডেড বা ট্রেনের গার্ড এর কাছে যেতে হত। কিন্তু তাদের সাথে যোগাযোগ করতে গিয়ে অনেকটা সময় নষ্ট হত। তাই দ্রুত পরিষেবা দিতে টিকিট পরীক্ষকের কাছেই এই সুবিধা উপলব্ধ করানো হল।