বিনোদনসেরা খবর

মুখোমুখি হবে ‘মিঠাই-মিঠি’, ধারাবাহিকে আসছে নতুন মোড়

টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘মিঠাই’। শুরু থেকেই দারুন জনপ্রিয় ছিল এই সিরিয়ালটি। এমনকি লাগাতার ৫৭ বার বেঙ্গল টপারের খেতাবও চলে গিয়েছিল ‘মিঠাই’র নামে। তবে বিগত কয়েকমাসে টিআরপি তালিকায় প্রথম হওয়া তো দূর, একেবারে তলায় পড়ে থাকছিল ‘মিঠাই’।

এমতাবস্থায় ধারাবাহিকের ‘টিআরপি’ ধরে রাখতে ‘মিঠাই’কেই মেরে ফেলেছে নির্মাতারা। নতুন টুইস্ট সবাই চেয়েছিল বটে কিন্তু মিঠাই মারা যাক সেটা কেউই চায়নি। সবাই চেয়েছিল, মিঠাই এর কোলেই জন্ম নিক তাদের ছেলে শাক্য। তাদের ছেলে তাদের কাছেই বেড়ে ওঠুক। অন্য কোনো উপায়ে দুষ্টদের দমন করুক মিঠাই। 

কিন্তু এমনটা যে হওয়ার নয়। ওমি আগরওয়াল যে তাদের ছেড়ে দেবে না। সে সবসময়ই মিঠাইয়ের ক্ষতি করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। আর সেইমতো আগুনও লাগিয়ে দেয় সে। আর দূর্ভাগ্যবশত সেই আগুনেই মৃত্যু হয় মিঠাইয়ের। তবে আশ্চর্যের বিষয় হল, বাকি সব ঠিক থাকলেও মিঠাইয়ের মরদেহ কিন্তু খুঁজে পায়নি কেউ।

মাঝে ধারাবাহিক বেশ খানিকটা বিরতি নিয়ে দেখায় তাদের সন্তান শাক্য বেশ বড়ো হয়ে উঠেছে। সে আবার এতটাই দুষ্টু যে, কারো পক্ষেই সামলানো সম্ভব হচ্ছেনা। এমতাবস্থায় তার জন্য নতুন টিচারের খোঁজ করছে সিড। আর সেই টিচার হিসেবে হাজির হয়েছে ‘মিঠি’।

তাকে দেখতে অবিকল মিঠাইয়ের মত হলেও আদব কায়দা কিন্তু একেবারেই আলাদা। মাথায় লম্বা বেনীর জায়গায় খোলা কোঁকড়ানো চুল। পরনে শাড়ির পরিবর্তে কেতাদুরস্ত ওয়েস্টার্ন পোশাক। তবে চোখেমুখে দুষ্টুমি কিন্তু মিঠাই কেও হার মানাবে।

এমতাবস্থায় সকলেরই একটা প্রশ্ন ছিল, মিঠির সাথে মিঠাইয়ের কী যোগাযোগ? এবার এই প্রশ্নের উত্তর দিলেন সৌমিতৃষা নিজেই। এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ধারাবাহিকটার নামটাই তো মিঠাই, তাহলে কি করে মারা যেতে পারে মিঠাই।’ অর্থাৎ এতে স্পষ্ট যে, মিঠাই মারা যায়নি। তবে মিঠাই কি মিঠি কি না তা এখনও স্পষ্ট নয়।

Related Articles

Back to top button